কলকাতা: নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে শুক্রবার তাণ্ডব চলে মুর্শিদাবাদের বেলডাঙা এবং হাওড়ার উলুবেড়িয়া স্টেশনে। ভাঙচুর,রেল অবরোধ থেকে স্টেশন মাস্টারের ঘরে অগ্নিসংযোগ উন্মত্ত জনতার তাণ্ডবে সম্পূর্ণ স্তব্ধ হয়ে যায় ট্রেন পরিষেবা।

একাধিক স্টেশনে আটকে পড়ে বহু দূরপাল্লার ট্রেন। সকাল থেকে যে দুর্ভোগ শুরু হয়েছিল রাত বাড়লেও তা কমেনি। হাওড়া স্টেশনে এখনও দাঁড়িয়ে রয়েছে একাধিক দূরপাল্লার ট্রেন। দিঘাগামী কাণ্ডারি এক্সপ্রেস উলুবেড়িয়া পর্যন্তই যাবে বলে জানিয়েছে রেল। হাওড়া-পন্ডিচেরি এক্সপ্রেস ছেড়ে গিয়েছে বলেও জানিয়েছে রেল। ইতিমধ্যেই বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে ১১টি লোকাল ট্রেন । আর একাধিক ট্রেন দাঁড়িয়ে রয়েছে বিভিন্ন স্টেশনে।

ট্রেন বাতিলের জেরে ভিড় উপচে পড়েছে হাওড়া স্টেশন চত্বরে। পরিস্থিতি যথাসম্ভব দ্রুত স্বাভাবিক করার চেষ্টা করছে রেল কর্তৃপক্ষ। উলুবেড়িয়া স্টেশনে আপ লাইনে শুরু হয়েছে ট্রেন চলাচল। যাত্রী ভোগান্তি লাঘব করতে ইতিমধ্যেই হাওড়া বাসস্ট্যান্ড থেকে দূরপাল্লার বাস পরিসেবা শুরু করেছে ইন্টার অ্যান্ড ইন্ট্রা রিজিয়ন। তবে আটকে থাকা বাকি ট্রেনগুলি সম্পর্কে এখনও কিছু বিস্তারিত জানায়নি রেল।

যে ট্রেনগুলি বিভিন্ন স্টেশনে আটকে রয়েছে সেই ট্রেনগুলি হল-
সাঁতরাগাছিগামী জব্বলপুর হামসফর এক্সপ্রেস, দিল্লিগামী কুরলা এক্সপ্রেস, হাওড়াগামী যশবন্তপুর এক্সপ্রেস, ইস্ট-কোস্ট এক্সপ্রেস, শালিমার- আদ্রা রাজ্য রানি এক্সপ্রেস, ধৌলি এক্সপ্রেস, হাওড়া-ভুবনেশ্বর জনশতাব্দী এক্সপ্রেস, রূপসী বাংলা এক্সপ্রেস, অমরাবতী এক্সপ্রেস।

শিয়ালদহ লাইনে শনিবার বন্ধ রাখা হয়েছে অসমগামী বিভিন্ন দুরপাল্লার ট্রেন। আগামীকাল, শনিবার যে ট্রেনগুলি বন্ধ রাখা হয়েছে সেইগুলি হল- ১৫৯৫৯ হাওড়া-ডিব্রুগড় কামরূপ এক্সপ্রেস (১৪.১৫ এবং ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাতিল), ১৫৯৬০ ডিব্রুগড়-হাওড়া কামরূপ এক্সপ্রেস (১৪.১৫ এবং ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাতিল), ১৩১৭৫ আপ শিয়ালদহ-শিলচর কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস (১৪ ডিসেম্বর বাতিল), ১৩১৭৪ আগরতলা-শিয়ালদহ কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস ( ১৫ ডিসেম্বর বাতিল), ১৩১৭৬ শিলচর-শিয়ালদহ কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস (১৬ ডিসেম্বর বাতিল), ১৫৯০৬ ডিব্রুগড়-কন্যাকুমারী এক্সপ্রেস (১৪ ডিসেম্বর বাতিল), ১৫৯৩০ ডিব্রুগড়-তামবারাম এক্সপ্রেস (১৫ ডিসেম্বর বাতিল)।