কলকাতা: দেশে করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বেড়েই চলেছে৷ সংক্রমণ চলে গিয়েছে চরম পর্যায়ে। গত ২৪ ঘন্টায় সর্বোচ্চ করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে দেশে। ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩২ হাজার ৬৯৫ জন।

করোনা থাবা থেকে রেয়াই পায়নি ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অফ বেঙ্গল (সিএবি)৷ বুধবার রাতেই সিএবি সচিব স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায়ের করোনা আক্রান্তের খবর পাওয়া যায়৷ গতকালই তাঁর কোভিড-১৯ রিপোর্ট পজিটিভ আসে৷ রিপোর্ট জানার পরই শহরের এক নামী হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের দাদা৷

পাশাপাশি সৌরভ-সহ পরিবারের বাকি সদস্যরা হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়৷ সৌরভ, স্ত্রী ডোনা, মেয়ে সানা এবং মা-সহ পুরো পরিবারই হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে৷ বৃহস্পতিবার সিএবি প্রেসিডেন্ট অভিষেক ডালমিয়াও নিজে হোম কোয়ারেন্টাইনের থাকার কথা জানান৷

এদিন দুপুরে ফোনে অভিষেক বলেন, ‘বুধবার রাতেই আমি স্নেহাশিস দা’র পজিটিভ রিপোর্টের কথা শুনেছি৷ চিকিৎসার জন্য ওনাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে৷ তবে আমরা গত সপ্তাহ থেকেই হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছি৷ কারণ সিএবি-তে একজন স্টাফের রিপোর্টও পজিটিভ আসার পর হু-এর গাইডলাইন মেনে আমরা হোম কোয়ারেন্টাইনে চলে যায়৷ এক সপ্তাহ ধরে আমি হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছি৷ আরও এক সপ্তাহ আমাকে এভাবেই থাকতে হবে৷

আপনার সঙ্গে কী এর মধ্যে স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায়ের কোনও সাক্ষাত হয়েছিল? উত্তরে অভিষেক বলেন, ‘ইডেন গার্ডেন্সের গ্যালারি কোভিড-১৯ কোয়ারেন্টাইন সেন্টার করার জন্য লাল বাজারে পুলিশ কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করি৷ ওই বৈঠকে সিএবি-র প্রতিনিধি হিসেবে আমিই কেবলমাত্র ছিলাম৷ কিন্তু তার পর ইডেনে বিষয়টি দেখার সময় স্নেহাশিস দা এসে যোগ দিয়েছিলেন৷’

ইডেনে গার্ডেন্সের গ্যালারিকে অস্থায়ী কোয়ারেন্টাইন হিসেবে ব্যবহার করার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছিল লাল বাজারের তরফে৷ আবেদনে সাড়া দিতে দেরি করেনি সিএবি৷ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ই, এফ, জি এবং এইচ ব্লকের গ্যালারিগুলির অধীনে কোয়ারেন্টাইন স্থাপনের জন্য ব্যবহৃত হবে। যদি আরও স্থান প্রয়োজন হয়, সেক্ষেত্রে জে ব্লকটি ব্যবহারের জন্যও রাখা যেতে পারে। এই ধরনের অঞ্চলগুলি সুরক্ষা ব্যবস্থা হিসাবে পুরোপুরি আলাদা করা হবে। যেহেতু ক্লাব হাউসে প্রশাসনিক ক্রিয়াকলাপ ঘটে তাই সংলগ্ন ব্লকগুলি (বি, সি, ডি, কে এবং এল) ব্যবহার করা হবে না৷

সেদিন অভিষেক বলেছিলেন, ‘সঙ্কটের এই সময়ে প্রশাসনকে সহায়তা করা এবং তাদের সমর্থন করা আমাদের দায়িত্ব। কোয়ারেন্টাইন সুবিধাটি পুলিশ কর্মীদের জন্য ব্যবহৃত হবে যাঁরা কোভিড যোদ্ধা। আন্ডার গ্যালারিগুলি ই, এফ, জি, এইচ এবং জে ব্লকগুলিতে ব্যবহৃত হবে তা যথাযথভাবে পৃথক করে ব্যালেন্স অঞ্চলগুলি থেকে সুরক্ষিত করা হবে।’

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ