নয়াদিল্লি: সংঘর্ষ কমার লক্ষণই নেই। মঙ্গলবারও দিল্লির ভজনপুরার বিভিন্ন জায়গায় লাঠি, লোহার রড হাতে দাপিয়ে বেড়াতে দেখা যায় বেশ কিছু লোকজনকে। দু’পক্ষের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ চলে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নাজেহাল দশা হয় পুলিশের। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসি ইস্যুতে সংঘর্ষ চলে দিল্লির চাঁদবাগ এলাকাতেও৷ কমপক্ষে ১০ জনের মৃত্যুর খবর আসছে৷ একশোরও বেশি মানুষ আহত হয়েছেন৷

সিএএ ও এনআরসি ইস্যুতে একটানা তিনদিন ধরে গন্ডগোল চলছে উত্তর-পূর্ব দিল্লিতে৷ ক্রমেই বাড়ছে উত্তেজনা৷ মঙ্গলবারও একাধিক গোষ্ঠী সংঘর্ষে জড়ায়। দু’পক্ষের মধ্যে চলে পাথর-বৃষ্টি৷ এলাকার একাধিক দোকানে চলে বেপরোয়া ভাঙচুর, আগুন৷ উত্তর-পূর্ব দিল্লির বিভিন্ন প্রান্ত রণক্ষেত্রের চেহারা নেয়৷

মঙ্গলবার দুপুরে নতুন করে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে দিল্লির ভজনপুরাচকে৷ হাতে লাঠি, লোহার রড নিয়ে এলাকায় দাপিয়ে বেড়াতে থাকে একদল উন্মত্ত জনতা৷ সোমবারের পর এক ছবি নিয়ে ঘোরাফেরা করতে দেখা গিয়েছে বহু মানুষকে৷

একদল সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসি বাতিলের দাবিতে সরব, উল্টোদিকে অন্যপক্ষ আন্দোলনকারীদের দমনে লাগামছাড়া তাণ্ডবে মত্ত৷ মঙ্গলবার দুপুরের পর থেকে উত্তপ্ত হতে শুরু করে দিল্লির ভজনপুরাচক৷ দু’পক্ষের সংঘর্ষে ধুন্ধুমার পরিস্থিতি তৈরি হয়। লাঠি, রড নিয়ে দু’পক্ষের লোকজন একে অপরকে মারধর শুরু করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ও উত্তেজিত জনতাকে শান্ত করতে হিমশিম দশা হয় পুলিশের।

সোমবারও একই ছবি ধরা পড়েছিল দিল্লির চাঁদবাগ এবং কারোয়াল নগর এলাকাতে। নাগরিকত্ব আইনের পক্ষে ও বিপক্ষে বিক্ষোভকারীদের মধ্যে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। এদিকে, দিল্লির পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সচেষ্ট কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রের দাবি, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রাজধানীর অলি-গলিতে পর্যাপ্ত পুলিশবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ দিল্লিতে সব পক্ষকে শান্তি বজায় রাখার আবেদন জানিয়েছেন।

দিল্লির পরিস্থিতি নিয়ে ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সঙ্গে বৈঠক করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। কীভাবে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা যায় সেব্যাপারে কথা হয়েছে দু’জনের।

এদিকে, উসকানি ও প্ররোচনামূলক কোনও মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। একইসঙ্গে দিল্লি লাগোয়া রাজ্যের সীমানা গুলিতে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। বাইরে থেকে যাতে কেউ বা কারা রাজধানীতে ঢুকে পড়ে অশান্তি না ছড়াতে পারে সেই কারণেই সীমানাগুলিতে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প