নয়াদিল্লি: একদিকে আর্থিক সংকটের জেরে পণ্য পরিবহণ কমেছে ভারতীয় রেলে। অন্যদিকে শিল্পক্ষেত্রে সংকটের সময় ইতিবাচক বার্তা দিতে রেল ঠিক করল লৌহ আকরিক ও পেট্রোপণ্য বাদে অন্য সমস্ত পণ্য পরিবহণে এই ব্যস্ত সময়ের (অক্টোবর-জুন) ১৫ শতাংশ সারচার্জ কমিয়ে দেওয়ার।

তাছাড়া জানানো হয়েছে , মালগাড়ি মারফত ছোট আকারের পণ্য আনা-নেওয়ায় ক্ষেত্রে ৫% বাড়তি ছাড়ের কথা। রেল মন্ত্রকের দাবি, এতে রেলে পণ্য পরিবহণ বাড়বে। পাশাপাশি এঅর্থনীতির চাকাও গতি বাড়বে। যদিও শিল্পের ক্ষেত্রে প্রশ্ন উঠছে, বাজারে যেখানে চাহিদা নেই, সেখানে মালপত্র পাঠানো কমেছে এবং বাণিজ্যিক গাড়ি বিক্রি তলানিতে এসে ঠেকেছে সেই সময় পণ্য ভাড়ায় ছাড় দিয়ে আদৌ কোনও লাভ হবে কি না ?

বিক্রির জন্য গাড়ি নিয়ে যেতে বাড়তি মালগাড়ি দেওয়ার কথাও জানিয়েছে রেল। তবে এই পরিস্থিতিতে শিল্পমহলের একাংশের বক্তব্য, গাড়ি যেখানে বিক্রিই হচ্ছে না এবং বহু সংস্থাকে সাময়িক উৎপাদন বন্ধ রাখছে হচ্ছে। সেখানে মালগাড়ির ব্যবস্থা করে কী হবে৷ যদিও রেলের যুক্তি, এ ভাবে গাড়ি পরিবহণের খরচা কম হবে সেক্ষেত্রে গাড়ির দামও কমবে। আর চাহিদা বাড়াতে সেটাও জরুরি।