বোলপুর: করোনার জেরে বন্ধ হতে চলেছে শান্তিনিকেতনের শতাব্দী প্রাচীন পৌষমেলা। ১২৫ বছরের এই মেলা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া রুখতেই কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্ত।

তবে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্তের সঙ্গে সহমত নন ব্যবসায়ীরা। পৌষমেলার আয়োজনের আবেদন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি দিয়েছে বোলপুর ব্যবসায়ী সমিতি।

পৌষমেলা হোক, করোনার সংক্রমণ রুখতে যাবতীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনেই মেলা চালানোর আবেদন বোলপুর ব্যবসায়ী সমিতির। আগেই পৌষমেলা বন্ধের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও চিঠি দিয়েছে বোলপুর ব্যবসায়ী সমিতি।

ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, পৌষমেলার উপর বহু মানুষের রুজি-রুটি নির্ভর করে। শীতকালে পৌষমেলায় পর্যটকদের ভিড় উপচে পড়ে। তাই বেচা-কেনাও ভালো হয়। মেলা বন্ধ হলে আর্থিকভাবে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়তে হবে ব্যবসায়ীদের।

তবে করোনা আবহে মেলা পরিচালনায় সায় নেই বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের। করোনা পরিস্থিতিতে কোনভাবেই পৌষমেলার অনুমতি দেওয়া যাবে না বলে জানিয়েছেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী। তিনি জানিয়েছেন, করোনা অতিমারীর আবহে এবছর কিছুতেই পৌষমেলার মতো এত বড় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা সম্ভব নয়।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ