স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: ব্যাংক প্রতারণার শিকার হলেন এক ব্যবসায়ী৷ ঘটনাটি খড়দহের৷ প্রতারিত ওই ব্যবসায়ীর নাম শ্যামল ঘোষ৷ খোয়া গিয়েছে এক লক্ষ টাকা৷

শ্যামল বাবু জানিয়েছেন, তাঁর বন্ধন ব্যাংকে একটি কারেন্ট অ্যাকাউন্ট রয়েছে৷ রোজের মতোই শনিবার দুপুরে তিনি তাঁর অফিসে কম্পিউটারে কাজ করছিলেন৷ তখন হঠাৎ তার মোবাইলে ব্যাংকের থেকে পরপর দশটি ম্যাসেজ আসতে শুরু করে৷ তখন তিনি বুঝতে পারেন তাঁর এটিএম কার্ডটি কেউ হ্যাক করে নিয়েছে৷

আরও পড়ুন- সুজিত-সব্যসাচী অনুগামীদের মধ্যে সংঘর্ষে সল্টলেকে চলল গুলি

আর সেটিকে কাজে লাগিয়ে টাকা তুলে নিচ্ছেন৷ সঙ্গে সঙ্গে তিনি এটিএম কার্ডটি ব্লক করার চেষ্টা করেন৷ কিন্তু তাতে তিনি ব্যর্থ হন৷ এরপর তিনি ব্যাংকের কাস্টমার কেয়ারে ফোন করে কথা বলেন৷ তিনি জানান তাঁর এটিএম কার্ডটি ব্লক করার জন্য৷ কাস্টমার কেয়ার তাঁকে জানায় কার্ডটি কেউ ক্লোন করে নিয়ে টাকা তুলছেন৷

আরও পড়ুন- মুকুলের সঙ্গে নৈশভোজে অধীর-দীপা, বিজেপি যোগের সম্ভাবনা প্রবল

তাঁর অভিযোগ, মাত্র তিন মিনিটের মধ্যে ১০ দফায় অ্যাকাউন্ট থেকে ১ লক্ষ টাকা তুলে নেওয়া হয়৷ প্রত্যেকটি এসএমএস পর পর তিনি পান৷ তিনি গোটা প্রতারণার বিষয়টি খড়দহ থানায় জানিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ জানিয়েছে, সাইবার ক্রাইম থানা এই ঘটনার তদন্তে নেমেছে। প্রতারিত শ্যামল বাবু নিজের টাকা ফেরত চাইছেন ব্যাংক কর্তৃপক্ষের কাছে৷