নয়াদিল্লি: সারা দেশে করোনার জেরে বহু মানুষ তাঁদের চাকরি হারিয়েছে, অনেকের আবার ব্যবসা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। ফলে মহা মুশকিলে পড়েছেন অএমেকেই। তবে এই অবস্থায় আপনি এমন একটি ব্যবসা শুরু করতে পারেন যার চাহিদা প্রতি ঘরে ঘরে রয়েছে।

এই ব্যবসায়ে মাসে ১.১৪ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করে ভালো উপার্জন করতে পারবেন। এমনকি এই ব্যবসায় মিলবে সরকারি সহায়তাও।

সরকারি লোনের সুবিধা: আপনি যদি ভালো আয়ের চিন্তা ভাবনা করে থাকেন, তবে ধাতব বাসনের ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এই ব্যবসার জন্য সরকারের মুদ্রা প্রকল্পের আওতায় লোনও পাওয়া যায়।

প্রায় প্রতিটি বাড়িতেই বাসনের চাহিদা থাকে। সুতরাং আপনিও এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন এবং উপার্জন করতে পারেন। এতে বাড়ির নানান বাসন তৈরির পাশাপাশি আপনি চাইলে কৃষিকাজের নানান সরঞ্জাম তৈরি করতে পারেন, তাতেও লাভ হবে।

এই ব্যবসা করতে মোট সবকিছু সেটআপ করতেই প্রায় ১.৮ লক্ষ টাকা লেগে যাবে। ওয়েল্ডিং সেট, বাফিং মোটর, ড্রিলিং মেশিন, বেঞ্চ গ্রিন্ডার, হ্যান্ড ড্রিলিং, হ্যান্ড গ্রিল্ডার, বেঞ্চ, প্যানেল বোর্ড এবং অন্যান্য সরঞ্জামের জন্য এই খরচ হবে। এছাড়াও ২ মাসে কাঁচামাল কিনতে খরচ হবে প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা। এর ওপরে শ্রমিকদের খরচ দিতে হবে ৩০ হাজার টাকা। মোট ব্যয় ৩.৩ লক্ষ টাকা।

আশার কথা হল এত টাকা আপনার প্রথমেই দিতে হবে না। এরজন্য আপনাকে প্রথমে মাত্র ১.১৪ লক্ষ টাকা নিজেকে দিতে হবে ও বাকি টাকা নিতে পারেন মুদ্রা প্রকল্পের আওতায়।

প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনার আওতায় লোন পেতে হলে যে কোনও ব্যাংকে আবেদন করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে একটি ফর্ম পূরণ করতে হবে যাতে নাম, ঠিকানা, ব্যবসায়ের ঠিকানা, শিক্ষা, বর্তমান আয় এবং কত লোন প্রয়োজন তা লিখে রাখতে হবে।

জেলবন্দি তথাকথিত অপরাধীদের আলোর জগতে ফিরিয়ে এনে নজির স্থাপন করেছেন। মুখোমুখি নৃত্যশিল্পী অলোকানন্দা রায়।