file image

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বাস মালিকদের সংগঠনগুলিকে ট্রিপের সংখ্যা বাড়ানোর আর্জি জানালেন পরিবহণে দফতরের নবগঠিত বিশেষ কমিটি। এছাড়াও বিভিন্ন রুট সচল করার কথা বলেন ওই কমিটির সদস্যরা।

শুক্রবার কসবার পরিবহণ ভবনে সংগঠনগুলির নেতৃত্বের সঙ্গে পৃথকভাবে বৈঠক করে কমিটি। করোনা পরিস্থিতিতে যাত্রীদের উপর বেশি ভাড়ার বোঝা যে তারা চাপিয়ে দেওয়ার পক্ষপাতি নয়, সেটা এদিন পরিবহণ দফতরের কর্তারা স্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন। বৈঠকে রুটপিছু বাসের ‘ট্রিপের’ সংখ্যা বাড়ানোর কথা বলা হয়েছে বাসমালিকদের। কমিবটির সদস্যদের বক্তব্য, রেল এবং মেট্রো সচল হলে বর্ধিত যাত্রীসংখ্যার চাপ সামলাতে বাসের চাহিদা বাড়বে। ফলে দূরত্ববিধি মেনেই সব আসনে যাত্রী নিয়ে বাস চালাতে হবে।

এদিকে, গত ১৫ দিনে পাঁচ টাকার বেশি লিটার প্রতি ডিজেলের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিন বাস মালিকরা বলেন, একদিকে কম যাত্রী নিয়ে পরিষেবা দেওয়া হচ্ছে, অন্যদিকে ডিজেলের দাম বেড়েই চলেছে। এই দুই চাপ সহ্য করতে হচ্ছে। দ্রুত ভাড়া বৃদ্ধি না-করা হলে রাস্তায় বাসের সংখ্যা কমবে।

অল বেঙ্গল বাস মিনিবাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের যুগ্ম-সম্পাদক প্রদীপনারায়ণ বসুর দাবি, ভাড়া বৃদ্ধি নিয়ে সরকারি সিদ্ধান্ত ঝুলে থাকলে বাস আরও কমবে।

বৈঠকে এও অভিযোগ উঠেছে, ডায়মন্ড হারবার, আরামবাগ-সহ কিছু রুটে সরকারি বাস বেশি হওয়ায় বেসরকারি বাস চালানোর নিয়ে মালিকদের আগ্রহ কমছে।

এদিন বৈঠকে রোড ট্যাক্স মকুব, কর্মীদের জন্য বিমা সহ আরও কয়েকটি দাবি তোলা হয়। বিষয়গুলি নিয়ে সরকার যে ভাবনাচিন্তা করছে, তা মালিকদের জানানো হয়েছে। আগামী সপ্তাহে বিশেষ কমিটি তাদের রিপোর্ট পরিবহণ দফতরে জমা দিতে পারে বলে খবর।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ