স্টাফ রিপোর্টার, মুর্শিদাবাদ: বাস দুর্ঘটনার পর লাফিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা৷ আজ নতুন করে চার’টি দেহ উদ্ধার হয়েছে৷ এই নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৪২৷ এখনও বেশ কয়েকজন নিখোঁজ বলে জানা গিয়েছে৷ দেহ উদ্ধারে চলছে তল্লাশি অভিযান৷ মুর্শিদাবাদে বাস দুর্ঘটনা বহরমপুরের সার্কিট হাউসে বৈঠকে বসলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ বৈঠকে রয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী, সিএমওএইচ-সহ জেলা প্রশাসনের কর্তারা৷

আরও পড়ুন: বাস দুর্ঘটনা: মৃত্যুপুরী মুর্শিদাবাদ হাসপাতালে মুখ্যমন্ত্রী

আজ সকালে তাঁদের পরিজনরা খালের পাশে ভিড় জমান। তবে ভোরের দিকে কুয়াশা থাকায় উদ্ধার কাজ শুরু করতে দেরি হয়েছে। জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী জানায়, বেলা বাড়লে খালে ডুবুরি নামিয়ে ফের শুরু হবে তল্লাশি। সেইমতো শুরু হয়েছে তল্লাশি অভিযান। গতকাল সন্ধেয় খালের জলের দৃশ্যমানতা কমে যাওয়ায় বন্ধ করে দেওয়া হয় উদ্ধার কাজ।

দেরিতে উদ্ধারকার্য শুরু হওয়ার অভিযোগে সোমবার পুলিশ ও দমকলের গাড়িতে ভাঙচুর চালিয়ে, আগুন ধরিয়ে দিল জনতা৷ পুলিশের তরফেও পাল্টা লাঠিচার্জ ও টিয়ার গ্যাস ছোড়া হয়৷ তাতে ক্ষুব্ধ জনতা দমে না গিয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে পালটা ইটবৃষ্টি শুরু করে৷ সবমিলিয়ে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় মুর্শিদাবাদের ইসলামপুর থানা এলাকার দৌলতাবাদ৷