কুয়ালালামপুর: বোরখা খুলে ক্যামেরার সামনে নেচেছিলেন বলে কিছুদিন আগেই এক ইরানি মেয়েকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। আর তার প্রতিবাদে নাচের ভিডিও পোস্ট করেছে একের পর এক ইরানি মহিলা। তবে সেসব টেক্কা দিয়ে ইনস্টাগ্রামের ময়দানে হাজির আরও এক মহিলা। যার মাথায় হিজাব সরছে না। আর পায়ে ফুটবল যেন হার মানাচ্ছে মেসি-রোনাল্ডোকে।

পায়ে পায়ে ফুটবলে ছন্দ তুলছে সে। ব্যালান্স করছে মাথা দিয়ে। ড্রিবলিং, জাগলিং, ব্যালান্সিং- এসব যেন তার বাঁ পায়ের খেল। ইনস্টাগ্রামে ফুটবলের সেই ট্রিকস পোস্ট করেছেন মালয়েশিয়ার খুইরুন্নিসা এনদাং ওয়াহুদি। পরনে গোলাপি হিজাব। পায়ে কালো স্ল্যাক্স আর বুট। রাস্তার মাঝে দাঁড়িয়ে ট্রিকস দেখাচ্ছেন তিনি।

১৮ বছরের মেয়ের সেই দক্ষতা দেখে তাক লাগছে দুনিয়ার। জানা গিয়েছে, ২০১৬ থেকে ফুটবলের প্রেমে পড়ে যায় এই তরুণী। এরপর ইউটিউবে ভিডিও দেখে স্টান্ট প্র্যাকটিস শুরু।

যদিও মালয়েশিয়ার র‍্যাংকিং খুব একটা ভাল নয়, তবু ফুটবলে সেদেশের এক অন্যতম প্রিয় খেলা। আর গোটা দুনিয়া যখন ফিফা জ্বরে কাঁপছে, তখন এই এই ধরনের ভিডিওতে ভরে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া। কিছুদিন আগে পাঁচ বছরের এক খুদে ফুটবলারের ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ইংল্যান্ডের এক ক্রিকেটার কেভিন পিটারসেনও তাঁর ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে এরকমই একটি ভিডিও শেয়ার করেন।