লন্ডন: ভারতীয় দলের বিশ্বজয়ের চাবিকাঠি লুকিয়ে রয়েছে জসপ্রীত বুমরাহর হাতেই। এমনটাই মত অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন বিশ্বজয়ী অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্কের। বিশ্বকাপ শুরুর আগে থেকেই প্রাক্তন ক্রিকেটার থেকে শুরু করে বিশেষজ্ঞরা ভারতের বোলিং লাইন আপকে ‘সেরা’ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন। আর তাঁদের মতে ‘এক্স-ফ্যাক্টর’ অবশ্যই জসপ্রীত বুমরাহ।

বিশ্বকাপের শুরু থেকে বিশেষজ্ঞদের সেই প্রেডিকশনকে মান্যতা দিয়ে নিজের নামের প্রতি সুবিচার করছেন বুমরাহ। আর আফগানিস্থান ম্যাচে নিজেকে উচ্চতায় নিয়ে গিয়ে ম্যাচ সেরার পুরস্কার ছিনিয়ে নিয়েছেন কোহলির দলের এই স্ট্রাইক বোলার। অন্তিম ওভারে মহম্মদ শামির হ্যাটট্রিকের মতোই সমান গুরুত্বপূর্ণ ছিল ২৯তম ওভারে ক্রিজে থিতু হয়ে যাওয়া দুই আফগান ব্যাটসম্যানকে বুমরাহর প্যাভিলিয়নে ফেরানোর ঘটনা।

সব দেখেশুনে টুর্নামেন্টের মাঝপথেই জসপ্রীতকে নিয়ে তাঁর উপলব্ধি ব্যক্ত করলেন ক্লার্ক। প্রাক্তন অজি অধিনায়ক জানালেন, ‘আমার মতে বুমরাহের খামতি কিছু নেই। ও যথেষ্ট ফিট। আশা রাখি ও এভাবেই বিশ্বকাপে ভারতের সাফল্যের একটা বড় অংশ হয়ে উঠবে। বুমরাহর বোলিংয়ে এমন কী বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যার জন্য সমস্যায় পড়ে ব্যাটসম্যানরা? উত্তরে ২০১৫ বিশ্বজয়ী অজি অধিনায়ক জানান, নতুন বলে সিমের সঙ্গে দুরন্ত সুইং ও মুভমেন্ট। পাশাপাশি মিডল ওভারগুলোতে পুরনো বলে বুমরাহের অতিরিক্ত গতি সমস্যায় ফেলে ব্যাটসম্যানদের।

একইসঙ্গে ক্লার্ক সংযোজন, ‘প্রথম থেকে ডেথ ওভার পর্যন্ত বুমরাহের বলে গতি সমানভাবে বজায় থাকে। যা প্রায় দেড়শো কিমির কাছাকাছি। পাশাপাশি ইয়র্কারেও অন্যান্যদের তুলনায় অনেক বেশি পারদর্শী সে। আর রিভার্স স্যুইংয়ের প্রশ্নে বুমরাহ তো একজন জিনিয়াস।’ পাশাপাশি বুমরাহর মতো অস্ত্র পেয়ে কোহলি যে ভীষণ ভাগ্যবান সে কথাও স্মরণ করিয়ে দেন টেস্ট ক্রিকেটে ব্যাগি গ্রিন জার্সিতে ৮,৬৪৩ রানের মালিক।

ক্লার্কের কথায়, ‘একজন অধিনায়ক হিসেবে তুমি সবসময় চাইবে বুমরাহর মত একজন বোলারকে, যে প্রয়োজনের সময় তোমায় উইকেট এনে দেবে। বুমরাহ বল হাতে যেমন ওপেন করতে পারে তেমনই ৩৫ ওভারে গিয়েও অধিনায়কের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারে। যখন বিশেষ কিছুই প্রত্যাশিত থাকে না। সেইসঙ্গে ডেথ ওভারে ওর বোলিং ভারতকে বিশ্বকাপ এনে দিতে পারে।’ বুমরাহর পাশাপাশি ক্লার্ক উচ্ছ্বসিত ডেভিড ওয়ার্নারকে নিয়েও। টুর্নামেন্টে এখনও অবধি ৪৪৭ রানের মালিককে বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রান স্কোরার হিসেবে দেখতে চেয়েছেন তিনি। বৃহস্পতিবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে নামছে ‘মেন ইন ব্লু’৷