স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: মোদী-টু সরকারের প্রথম বাজেটের কড়া সমালোচনা করলেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়৷ তাঁর বক্তব্য, এই বাজেট মানুষের আশার বেলুন ফুঁটো করে দিয়েছে৷

শুক্রবার কেন্দ্রীয় বাজেট পেশ করেছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন৷ পেশ করা হয়েছে রেল বাজেটও৷ বাজেটের প্রশংসা করেছেন প্রদানমন্ত্রীও মোদীও৷ তাঁর কথায়, ‘বাজেট উন্নয়নমুখী, নাগরিকবান্ধব ও আগামীর দিশা।’ দেশকে সমৃদ্ধশালী ও সাধারণ মানুষের শক্তি বৃদ্ধি করবে এই বাজেট৷ সুনিশ্চিত হবে গরিবদের ক্ষমতায়ন। মনে করেন নরেন্দ্র মোদী৷

কেন্দ্রীয় বাজেটকে বিশ্লেষণ করে তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, বাংলা বঞ্চিত হয়েছে। যে স্পেশাল প্যাকেজ দেওয়ার কথা হয়েছিল, তা হয়নি। পেট্রল-ডিজেলের দাম বৃদ্ধিতে বহুমুখী প্রভাব পড়বে। পরিবহণের খরচ বাড়াবে ফলে জিনিষের দামও বাড়বে। দূ্র্দশা বাড়বে মানুষের। তিনি আরও বলেন, বাজেটে তরুণদের কর্মসংস্থানের যেমন কোনও দিশা নেই, তেমনই তপশিলী জাতি-উপজাতি ও আদিবাসীদের উন্নয়নেরও কোনও দিশাও পাওয়া যায়নি।

কেন্দ্র সেস বৃদ্ধি করে রাজ্য থেকে যে অর্থ নিয়ে যাচ্ছে, তার ছিঁটেফোটাও রাজ্যকে দিচ্ছে না। পরিকাঠামো উন্নয়নে আকাশ কুসুম কথা বলা হয়েছে। অথচ বাজেটে ওই অর্থের কোনও সংস্থানই নেই। আবার অন্যদিকে, আয়করে কোনও নতুন ছাড় নেই। রাজ্যের মেট্রো প্রকল্প নিয়ে মানুষ যতটা আশা করেছিল, তা হয় নি।

এদিন তৃণমূল সুপ্রিমো তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাজেটের সমালোচনা করে ট্যুইটারে লিখেছেন‘এটাই নির্বাচনের পুরস্কার৷’

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও