ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: রাষ্ট্রায়ত্ত বিএসএনএল-এর ১.৭৬ লক্ষ কর্মীর এখনও ফেব্রুয়ারি মাসের বেতন হয়নি৷ এটাই প্রথম এই সংস্থার কর্মীদের বেতন আটকে যাওয়া৷ কর্মী ইউনিয়নরে পক্ষ থেকে টেলিকম মন্ত্রী মনোজ সিংহের কাছে আর্জি জানিয়েছে সরকার যেন অর্থের ব্যবস্থা করে কর্মীদের বেতন দেওয়ার জন্য এবং সংস্থাটি চাঙ্গা করার জন্য৷ পাশাপাশি কর্মীরা এ ইস্যুতে বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভও জানিয়েছে৷

বিএসএনএলের আয়ের ৫৫ শতাংশ চলে যায় কর্মীদের বেতন দিতে এবং বছরে বেতন বাবদ খরচ বৃদ্ধি পায় ৮ শতাংশ যদিও আয় এক জায়গায় দাঁড়িয়ে রয়েছে ৷ গত পাঁচ বছর ধরে বিএসএনএল ক্ষতিতে চলছে ৷ বিএসএনএল কর্মী ইউনিয়ন ইতিমধ্যেই অভিযোগ তুলেছে বিএসএনএলকে হাতিয়ার করে ফায়দা লুঠছে বেসরকারি টেলিকম সংস্থাগুলি অন্যদিকে বিএসএনএলকে চক্রান্ত করে রুগ্ন করে তোলা হচ্ছে ৷

কর্মীদের অভিযোগ একদিকে যেমন সাধারণ মানুষ তিতিবিরক্ত হয়ে উঠছেন বিএসএনএলের পরিষেবায়৷ তখন তার চাপ পড়ছে কর্মীদের উপর। কিন্তু কর্মীরা সেই কাজ করতে গেলে তারা দফতরের কোনেও সহযোগিতা পাচ্ছেন না।