রায়গঞ্জ: আন্তর্জাতিক সীমান্ত সংলগ্ন এলাকায় পাহারা দেওয়ার সময় গুলিবিদ্ধ বিএসএফ জওয়ান। তাঁকে চিকিৎসার জন্য ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে আনা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। জানা গিয়েছে, ওই জওয়ানের দেহে দুটি গুলি লেগেছে।

জখম জওয়ানের নাম প্রেম সিং। তিনি বাংলাদেশ লাগোয়া উত্তর দিনাজপুরের সীমান্তে পোস্টিং ছিলেন।

এদিকে গুলিবিদ্ধ জওয়ানের খবর পেয়েই ইসলামপুর হাসপাতালে যান বিএসএফ কর্তারা। তাঁরাও হামলাকারী সম্পর্কে কিছু জানাননি। সন্দেহ করা হচ্ছে গোরু পাচারকারীরা এই হামলায় জড়িত। আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন জওয়ান সুস্থ হলে বিষয়টি পরিষ্কার হবে।

বাংলাদেশের দিক থেকে সেদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনি বিজিবি গুলি ছোঁড়েনি বলেই প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে।

সীমান্তবর্তী এলাকায় গো পাচারকারীদের দৌরাত্ম বেশি। সেখানে প্রায়ই বিএসএফের সঙ্গে পাচারকারীদের সংঘর্ষ হয়। জখম প্রেম সিং কি তেমনই কোনও পাচারকারী দলের মুখোমুখি হয়েছিলেন কিনা পরিষ্কার নয়।

পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের সীমান্ত এলাকায় গোরু পাচারকারীরা অতি সক্রিয়। বিশেষ করে কোরবানির ঈদের আগে পাচার ব্যাপক বেড়ে যায়। গো পাচার রুখতে বিশেষ সতর্ক করা হয়েছে বিএসএফকে।
সীমান্তে বিএসএফ জওয়ান জখম হওয়ার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ইসলামপুরে।