Shidharth

মুম্বইঃ দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ঘটতে চলেছে। কারণ ইতিমধ্যেই মুক্তি পেয়েছে সিদ্ধার্থ শুক্লা (Siddharth Shukla) অভিনীত ব্রোকেন বাট বিউটিফুল (Broken But Beautiful 3) সিজিন থ্রি’য়ের ট্রেলার। রবিবার অলট বালাজি (ALT Bajali)র অফিসিয়াল সাইটে মুক্তি পেয়েছে বহুল প্রতীক্ষিত এই ওয়েব সিরিজ (web series)এর ট্রেলারটি। সিদ্ধার্থ শুক্লা এবং সনিয়া রাঠে (Sonia Rathee)সিরিজে মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করছেন। এক হারিয়ে যাওয়া ভালোবাসার গল্প বলবে ‘ব্রোকেন বাট বিউটিফুল ৩’। ২৯শে মে থেকে ‘’তে স্ট্রিমিং শুরু হতে চলেছে।

সিরিজে সিদ্ধার্থের চরিত্রের নাম অগস্থ রাও, যে একজন পরিচালক হওয়ার স্বপ্ন দেখে। সে প্রেমে পরে রুমি দেসাইয়ের। যিনি একজন স্ক্রিপ্ট রাইটার বা চিত্র নাট্যকার। রুমির চরিত্রে অভিনয় করছে সনিয়া। তাদের প্রেমে পড়া, বিচ্ছেদ হওয়া, পুরায় মিলন হওয়া এই সকল ওঠা পড়া নিয়ে তৈরি হয়েছে একতা কাপুরের (Ekta Kapoor) জনপ্রিয় ওয়েব সিরিজ ‘ব্রোকেন বাট বিউটিফুল ৩’। এই সিরিজের আগের দুটি সিজিনে অসাধারণ সাফল্যের পর তৃতীয় সিজিন তৈরি করার কথা আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন নির্মাতারা। ২০১৮ সালে মুক্তি পেয়েছিল ‘ব্রোকেন বাট বিউটিফুল’ এর প্রথম সিজিন। পরের বছর ২০১৯ এ দ্বিতীয় সিজিন মুক্তি পায়। এই দুটি সিজিনেই অভিনয় করেছেন বিক্রান্ত মেসি (Vikrant Massey) ও হারলিন শেঠি (Harleen Sethi)। ১০টি এবং ১১টি এপিসোড নিয়ে তৈরি সিজিন দুটি দর্শকরা ভীষণই পছন্দ করেছিল। সেই জন্যেই আসছে তৈরি তৃতীয় সিজিন।

সিদ্ধার্থ নিজের ইনস্টাগ্রামে সিরিজের ট্রেলারটি শেয়ার করেছেন। অভিনেতা ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘কখনও কখনও প্রেমে পড়ার চেয়ে প্রেমে ব্যর্থ হওয়াটা অনেক বেশি শক্তিশালি’। অভিনেতা সিদ্ধার্থ শুক্লার দর্শক মহলে চরম জনপ্রিয়তা থাকলে, তার মহিলা ভক্তদের সংখ্যা অনেক বেশি। ২০০৮ এ তার টেলিভিশনে অভিনয় শুরু। একাধিক জনপ্রিয় ধারাবাহিকে কাজ করেছেন তিনি। ২০১৪ সালে ‘হামটি শার্মা কি দুলহানিয়া’ (Humpty Sharma Ki Dulhania) এবং ২০১৬ সালে ‘বিজনেজ কি কজাখস্তান’ (Business in Kazakhstan) ছবিতে অভিনয় করেছেন। ‘বিগ বস ১৩’ (Big Boss 13) এর বিজয়ী হয়েছিলেন তিনি। নিজের পূর্বের সকল পারফরমেন্স দিয়ে দর্শকের মন জয় করেছেন অভিনেতা। তাই তার উপর দর্শকদের প্রত্যাশা অনেক বেশি। এই সিরিজে কতটা দর্শকদের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারবে সিদ্ধার্থ সেটার অপেক্ষায় রয়েছেন তার ভক্তরা।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.