ব্রিটন: সুপার সাব অ্যালিরেজা জাহানবাখশের শেষ মুহূর্তের দুরন্ত গোলে চেলসির বিরুদ্ধে নাটকীয় ড্র করল ব্রিটন অ্যান্ড হোভ অ্যালবিয়ন। ঘরের মাঠে চেলসিকে তারা আটকে দিল ১-১ গোলে। ম্যাচের শুরুতেই অ্যাপিলিকুয়েতার গোলে এগিয়ে গেলেও অ্যাওয়ে ম্যাচে পয়েন্ট খোয়াতে হলো ল্যাম্পার্ডদের।

দুই অর্ধে দু’টি গোল হলেও ব্রিটেন বনাম চেলসি ম্যাচ মোটেও উত্তেজক হয়নি। নিতান্ত ধীমে তালে খেলা গড়ায় ৮০ মিনিট পর্যন্ত। শুরুতেই গোল খেয়ে পিছিয়ে পড়লেও ব্রিটন কখনই মরিয়া হয়ে আক্রমণ চালায়নি চেলসির অর্ধে। অন্যদিকে দ্য ব্লুজরাও শুরুতেই লিড নেওয়ার পর ব্যবধান বাড়ানোর দিকে তেমন একটা নজর দেয়নি। শেষ ১০ মিনিটে ম্যাচের গতিপ্রকৃতি বদলে দেন অ্যালিরেজা। ইরানিয়ান উইঙ্গার চকিত আক্রমণে একাধিকবার বিব্রত করেন চেলসি রক্ষণকে। কেপার নির্ভরযোগ্য দস্তানা একবার পতন রোধ করলেও শেষমেশ অ্যালিরেজার চমকে দেওয়া ওভার হেড বাইসাইকেল কিক প্রতিহত করতে পারেনি। ফলে বছরের শুরুতেই প্রিমিয়র লিগের ম্যাচ ড্র করে সন্তুষ্ট থাকতে হল ল্যাম্পার্ডদের।

ম্যাচের ১০ মিনিটের মাথায় কর্নার কিক থেকে বল ধরে আব্রাহাম শট নেন ব্রিটনের পোস্ট লক্ষ্য করে। তবে তা প্রতিহত হয়ে ফিরে আসে অ্যাপিলিকুয়েতার কাছে। বক্সের ভিতর থেকে অ্যাপিলিকুয়েতার নেওয়া শট অবশ্য প্রতিহত করা সম্ভব হয়নি ব্রিটন গোলরক্ষকের পক্ষে। ফলে চেলসি এগিয়ে যায় ১-০ গোলে।

৪২ মিনিটের মাথায় চেলসি গোলকিপার কেপা বাঁ-দিকে ঝাঁপিয়ে নিশ্চিত একটি গোল বাঁচিয়ে দেন। না-হলে প্রথমার্ধেই ম্যাচে সমতায় ফিরতে পারত ব্রিটন। প্রথমার্ধের খেলা শেষ হয় চেলসির অনুকূলে ১-০ গোলে। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর দিকে তেমন একটা রোমাঞ্চকর মুহূর্তের সাক্ষী থাকেনি ব্রিটিশ ফুটবলমহল।

৬৮ মিনিটে মুইয়ের পরিবর্তে জাহানবাখশ মাঠে নামার পর ছবিটা বদলাতে থাকে। ৮০ মিনিটে অ্যালিরেজার একটি আক্রমণ প্রতিরোধ করেন কেপা। ৮৪ মিনিটে ইরানিয়ান তারকার দুরন্ত গোলে শেষমেশ ম্যাচে সমতা ফেরায় ব্রিটন।

প্রিমিয়র লিগে এই প্রথম চেলসির কাছ থেকে পয়েন্ট কাড়ল ব্রিটন এন্ড হোভ অ্যালবিয়ন। এর আগে মুখোমুখি সাক্ষাতে লিগের নটি ম্যাচেই চেলসির কাছে হারতে হয়েছিল ব্রিটনকে।