কলকাতা: করোনার বলি এবার সেনা আধিকারিক। একটানা কয়েকদিন ধরে কলকাতার কমান্ড হাসপাতালে চিকিৎসা চলছিল তাঁর। শেষমেশ বৃহস্পতিবার সকালে হাসপাতালে এই সেনা আধিকারিকের মৃত্যু হয়। করোনার উপসর্গ থাকায় তড়িঘড়ি তাঁর পরীক্ষা করানো হয়েছিল।

রিপোর্টে পজিটিভ আসতেই কলকাতার কমান্ড হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করা হয়। শেষমেশ মারণ ভাইরাস প্রাণ কাড়ল ব্রিগেডিয়ার পদমর্যাদার ওই সেনা আধিকারিকের।

জানা গিয়েছে, প্রয়াত সেনা আধিকারিকের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসার পরেই তাঁকে প্রথমে বারাকপুরের একটি করোনা হাসপাতালে ভরতি করা হয়। তবে চিকিৎসা শুরুর পরেও তাঁর শারীরিক পরিস্থিতির উন্নতি হয়নি। পরে তাঁকে কলাকাতার কমান্ড হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ভর্তি করা হয়।

একটানা বেশ কয়েকদিন কমান্ড হাসপাতালেই চিকৎসাধীন ছিলেন ওই সেনা আধিকারিক। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে তাঁর শ্বাসকষ্ট বেড়ে যায়।

শেষমেশ চিকিৎসা চলাকীলনই তাঁর মৃত্যু হয়। ইতিমধ্যেই এই সেনা আধিকারিকের সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।

দেশের অন্য রাজ্যগুলির পাশাপাশি নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে এরাজ্যেও। প্রতিদিন শহর কলকাতার পাশাপাশি জেলাগুলিতেও নতুন করে আক্রান্তের হদিশ মিলছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুয়ায়ী বৃহস্পতিবূার সকাল পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৯ হাজার ১৭০। বাংলায় করোনায় মৃত বেড়ে ৬৮৩। এখনও পর্যন্ত ১২ হাজার ৫২৮ জন করোনামুক্ত হয়েছেন।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ