শ্রীনগর: বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চ। বিস্ফোরণে এখনও পর্যন্ত একজন সাধারণ মানুষ  গুরুতর আহত হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। যদিও বিস্ফোরণে এখনও পর্যন্ত কারোর কোনও মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি। তবে ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা তৈরি হয়েছে সীমান্ত সংলগ্ন পুঞ্চ সেক্টরে। ঘটনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে সেনা এবং পুলিশের উচ্চ পদস্থ আধিকারিকরা। জঙ্গিদের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে। বিস্ফোরণের পরেই বিভিন্ন এলাকায় হাই অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। কর্ডন করে দেওয়া হয়েছে। চালানো হচ্ছে তল্লাশি অভিযান।

বর্ষশেষের রাত। গোটা দেশ মেতে। আর এই সময়কে পাখির চোখ করতে পারে পাক জঙ্গিরা। এই মর্মে আগেই সেনাকে সতর্ক করা হয়েছে। সেই মতো সীমান্তে কড়া নজর রাখছে সেনা-জওয়ানরা। প্রবল ঠান্ডার মধ্যেই চলছে নজরদারি। এরই মধ্যেই প্রবল বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চ সেক্টরে। বিস্ফোরণের তীব্রতা তেমনটা না থাকায় বড়সড় ঘটনা এড়ানো গিয়েছে বলেই বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে। তবে ঘটনার পরেই জম্মু-কাশ্মীরের বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি অভিযান শুরু হয়েছে। আর কোথাও জঙ্গিরা কোনও ল্যান্ডমাইন পেতে রেখেছে কিনা তা দেখা হচ্ছে। একই সঙ্গে জঙ্গিরা কোনও জায়গায় লুকিয়ে রয়েছে কিনা তা জানতে বিভিন্ন জায়গায় চলছে তল্লাশি।

অন্যদিকে, জম্মু-কাশ্মীরের পাশাপাশি গোটা দেশ নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে। দিল্লি, কলকাতা সহ দেশের প্রান্তে কিছুক্ষণের মধ্যে সাধারণ মানুষ মেতে উঠবেন নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে। আর সেই সময়ে যাতে কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্যে সমস্ত রাজ্যকেই ইতিমধ্যে অ্যালার্ট করা হয়েছে। সেই মতো স্টেশন, বিমানবন্দর, বিভিন্ন শপিং মলে চলছে নজরদারি। কার্যত আঁটসাঁট ব্যবস্থা সর্বত্র।