কলকাতা: করোনা আক্রান্ত রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ৷ প্রথমে তাকে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়৷ সেখান থেকে স্বপনবাবুকে স্থানান্তরিত করা হয়েছে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে৷

সূত্রের খবর, রাজ্যের ক্ষুদ্র, মাঝারি ও কুটির শিল্পমন্ত্রী স্বপন দেবনাথের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে৷ তারপরই তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়৷ মন্ত্রী ত়থা পূর্ব বর্ধমান জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতা স্বপন দেবনাথের করোনা সংক্রমণ সংবাদে জেলা তৃণমূল কংগ্রেস উদ্বিগ্ন৷

রাজ্যের এই মন্ত্রী বরাবরই কর্মঠ৷ করোনা রোগীদের দেখভালের কাজেও তিনি অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে করেছেন৷ পিপিই পরে তিনি হাসপাতাল পরিদর্শন করেছেন৷ তা স্বত্বেও নিজেকে করোনার হাত থেকে রক্ষা করতে পারলেন না৷ সম্প্রতি তাঁর সংস্পর্শে যাঁরা এসেছিলেন, তাঁদের চিহ্নিত করে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হবে বলে জানা গিয়েছে৷ এমনকি তাঁদেরও করোনা পরীক্ষাও করা হবে৷ এমনটাই সূত্রের খবর৷

এর আগে রাজ্যের মন্ত্রী সুজিত বসু, নির্মল মাজিরা আক্রান্ত হয়েছিলেন করোনায়৷ তবে সুস্থ হয়ে তাঁরা সকলেই ফের কাজে নেমেছেন৷ স্বপনবাবুরও দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছে তাঁর ঘনিষ্ঠ মহল। করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন রাজ্যের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু৷ তাঁর শরীরে করোনার সংক্রমণ পাওয়া গিয়েছিল৷ তাঁর বাড়ির পরিচারিকা করোনা আক্রান্ত ছিলেন৷

পরিচারিকার করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আসার পর মন্ত্রীর পরিবারের সদস্যদের করোনা পরীক্ষা করান৷আর তাতেই তাঁর শরীরে এই সংক্রমণ পাওয়া গিয়েছিল৷ সুজিতবাবুই রাজ্যের প্রথম কোনও মন্ত্রী যাঁর শরীরে কোভিডে সংক্রমণ ধরা পড়েছিল। তবে ইতিবাচক যে তাঁর শরীরে কোনও উপসর্গ ছিল না৷ তাই প্রথমে বাড়িতেই আইসোলেশনে ছিলেন তিনি৷

তারপর তাকে বাইপাসের পাশে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল৷ কিছুদিন পর সেখান থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরেন৷ অন্যদিকে মঙ্গলবার রাজ্য স্বাস্থ্য ভবনের বুলেটিনের তথ্য অনুযায়ী বাংলায় আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ছাড়াল৷ একদিনে মৃত ৪৯ জন৷ আক্রান্ত আরও প্রায় ৩ হাজার৷

তবে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭৩ হাজারের বেশি৷ একদিনে টেস্ট হয়েছে ২৭ হাজারের বেশি৷ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ২,৯৩১ জন৷ সোমবারের থেকে বেশি৷ সেদিন ছিল ২,৯০৫ জন৷ তবে এই পর্যন্ত রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যাটা ১ লক্ষ ছাড়িয়ে গেল৷ মোট আক্রান্ত ১ লক্ষ ১ হাজার ৩৯০ জন৷

সোমবার সংখ্যাটা ছিল ৯৮ হাজার ৪৫৯ জনে৷ তবে অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা কমে ২৫ হাজার ৮৪৬ জন হয়েছে৷ একদিনে কমেছে ১৮৫ জন৷ সোমবার ছিল ২৬ হাজার ৩১ জনে৷ রবিবার সংখ্যাটা ছিল ২৬ হাজার ৩৭৫ জনে৷

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা