কলকাতা:  সপ্তাহের শুরুতেই ধর্মঘটের ডাক। টালা ব্রিজ বন্ধ থাকার কারণে বাড়ছে খরচ। এই বিষয়ে সরকারের তরফে কোনও বক্তব্য দেওয়া হচ্ছে না। আর এরই প্রতিবাদে আগামী সোমবার থেকেই লাগাতার ধর্মঘটে বাস-মিনিবাস সংগঠনগুলি। প্রায় ২৭টি রুটের বাস বন্ধ রাখা হবে বলে জানানো হয়েছে।

আর এর ফলে সাধারণ মানুষ বিপদের মুখে পড়বে বলেই মনে করছে ওয়াকিবহলমহল। বিশেষ করে একসঙ্গে এতগুলি বাস বন্ধ করে দেওয়ার ফলে রাস্তায় বেরিয়ে গন্তব্যে পৌঁছানো রীতিমত চ্যালেঞ্জের হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

সূত্রে খবর, উত্তর কলকাতায় ফের আরও বেশ কয়েকটি রুটে বাস পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাস মালিক সংগঠন৷ জানা গিয়েছে, আগামী সোমবার থেকে অনির্দিষ্টকালে জন্য বন্ধ হয়ে বাসগুলি৷ জানা গিয়েছে ৭৮, ৭৮/১, ২১৪, ২১৪এ, ২৩০, ২৩৪, ২০১, ৩৪বি, ৩৪সি, ৩০এ, ২০২, কে৪, এস১৫৮, এস১৫৯, এস১৮০, এস১৮১, এস১৮৫, ২২২-এর মতো বেসরকারি রুটের বাসগুলির পরিষেবা বন্ধ থাকবে৷ আগামী সোমবার ৯ ডিসেম্বর থেকে আর চলবে না এইসব রুটের বাস৷ অনির্দিষ্টকালের জন্যে বাস বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জেলার বাস এবং মিনিবাস সংগঠনগুলি।

বাস মালিকদের অভিযোগ, টালা ব্রিজ বন্ধ হয়ে যাওয়ার ঘুরপথে বাস চালাতে হচ্ছে৷ তার ফলে প্রচুর ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে৷ এছাড়া সরকারকে বার বার বলা সত্বেও কমেনি পুলিশি জুলুম৷ পুলিশ অযথা মোটা অঙ্কের ফাইন করছে, তাই বাধ্য হয়ে বাস পরিষেবা বন্ধের সিদ্ধান্ত নিতে হল৷

অবস্থা খারাপ টাকা ব্রিজে, আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে ভাঙা হবে ব্রিজটিকে। আর সেই কারণে কয়েকটি রুটের বাস পরিষেবা বন্ধ রয়েছে আপাতত৷ তার উপর আরও একগুচ্ছ বাস বন্ধের সিদ্ধান্তে সমস্যায় পড়বেন সাধারণ বাস যাত্রীরা৷ সপ্তাহের প্রথম দিনেই চরম দুর্ভোগে নাকাল হবেন নিত্যযাত্রীরা৷

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও