file pic

আগরতলা – ত্রিপুরা বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে ক্রমশ বাড়ছে নিহতের সংখ্যা। বুধবার রাত থেকে দফায় দফায় চলছে সংঘর্ষ। ভয়ঙ্কর এই ঘটনায় বুধবারই নিহত হন একজন। গুরুতর জখম আরও একজনের মৃত্যু হল বৃহস্পতিবার। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে বাগমা এলাকায়।

এখানেই বিজেপির দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে অনেকে ঘরছাড়া। পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে গাড়ি, দোকান ও কয়েকটি বাড়ি। বিজেপি সমর্থকরা পরস্পরের উপর হামলা চালায় বলে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ।

সংঘর্ষে জখম একজনের মৃত্যু ঘিরে নতুন করে পরিস্থিতি গরম। নিহতের নাম বিল্টু সাহা বলে জানা গিয়েছে। আগরতলা জিবি হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা চলছিল। পঞ্চায়েত নির্বাচনে ত্রিপুরায় ৯০ শতাংশের বেশি আসন পেয়েছে বিজেপি । বিরোধী বাম ও কংগ্রেস প্রায় নিশ্চিহ্ন। ভোটের আগে থেকেই রাজনৈতিক সংঘর্ষ চলছে। বিরোধীদের অভিযোগ, শাসক বিজেপি হামলা চালিয়ে ভোট লুঠ করেছে। এদিকে বিজেপির গোষ্ঠী সংঘর্ষের জেরে এলাকাবাসী আতঙ্কিত। দফায় দফায় চলা এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা প্রতিবেশী রাজ্যে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।