ফাইল ছবি

ওয়াশিংটন: ফের করোনার রেকর্ড সংক্রমণ আমেরিকায়। গত একদিনে করোনা আক্রান্ত হলেন ৬৭ হাজার ৬৩২ জন। জন হপকিন্স ইউনিভার্সিটির তথ্য থেকে এই পরিসংখ্যানের হিসেব মিলেছে।

জুনের শেষ থেকে সারা বিশ্বে প্রচুর সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তাবড় বিশ্বনেতা থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ- আক্রান্ত হচ্ছেন লাখে লাখে। কীভাবে সংক্রমণ রোধ হবে, তা নিয়ে চিন্তায় বিশ্ববাসী।

উল্লেখ্য, এর আগে আমেরিকায় প্রতিদিন করোনা আক্রান্ত হচ্ছিলেন ৫৫ হাজার থেকে ৬৫ হাজার মানুষ। তবে বুধবারে সে রেকর্ডও ভেঙে গেল। আক্রান্ত ৬৭ হাজার ৬৩২ জন।

এর মধ্যেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ট্যুইট ঘিরে তীব্র চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছেন। তিনি টুইটে লিখেছেন, ‘ভ্যাকসিন নিয়ে বড় খবর!’ এর থেকে বেশি আর কিছু লেখেননি ট্রাম্প। কোথায় ও কতদিন ধরে এই ভ্যাকসিন তৈরির কাজ চলছে তা স্পষ্ট নয়। কিন্তু তাঁর এই ট্যুইটের পর অনুমান, করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে আমেরিকা থেকে তাড়াতাড়িই ভালো খবর আসতে পারে।

অন্যদিকে, আর এই ভ্যাক্সিনের ক্ষেত্রে সবার আগে যারা আলো দেখাতে শুরু করেছিল, তাদের মধ্য অন্যতম ‘অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি’। এরাই সবার আগে হিউম্যান ট্রায়াল শুরু করে। তাই সেদিকেই তাকিয়ে বসে আছে গোটা বিশ্ব। আর সেখান থেকে খুব তাড়াতাড়ি কিছু একটা খবর আসতে চলেছে বলে জানা গিয়েছে। বৃহস্পতিবারই কোনও ইতিবাচক রেজাল্ট আসতে পারে বলে জানা গিয়েছে। আইটিভি-র পলিটিক্যাল এডিটর রবার্ট পেস্টন এমনটাই জানিয়েছেন।

ফেজ-থ্রি হিউম্যান ট্রায়ালের পরীক্ষা চলছে। কিন্তু এখনও ফেজ ওয়ানের রেজাল্ট প্রকাশ করা হয়নি। এটা নিরাপদ কিনা, তা পরীক্ষা করা হবে। জুলাইয়ের শেষেই তার ফলাফল আসবে। ল্যান্সেট মেডিক্যাল জার্নালে সেই ডেটা প্রকাশিত হবে বলে জানা গিয়েছে।

অক্সফোর্ডের এই ভ্যাক্সিনের ‘অ্যাস্ট্রা জেনেকা’র লাইসেন্স রয়েছে। গোটা বিশ্ব জুড়ে একগুচ্ছ ভ্যাক্সিনের ট্রায়াল চলছে। তবে তার মধ্যে অক্সফোর্ডের গবেষণায় যে বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে সেকথা জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও।

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I