শ্রীনগর: মঙ্গলবার সকাল থেকে ফের শুরু সেনা-জঙ্গি গুলির লড়াই। উত্তপ্ত কাশ্মীরের গান্ডেরবাল। এখনও গুলির লড়াই অব্যাহত। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী জানা গিয়েছে, গুন্ড অঞ্চলে বর্তমানে গুলির লড়াই চলছে। ইতিমধ্যেই দু’জন জঙ্গির মৃত্যুর খবর পাওয়া যাচ্ছে।

ভারতীয় সেনার কাছে এখনও ঐ দুই জঙ্গির দেহ এসে পৌঁছয়নি। তবে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, ঐ দুই জঙ্গি লস্কর-এ-তইবার অংশ। এদিন সকালে জম্মু ও কাশ্মীর এবং কেন্দ্রীয় বাহিনীর যৌথ উদ্যোগে একতি অভিযান করা হয়। গোপন সূত্রে খবর পেয়েই এই অভিযান তাও জানানো হয়েছে সেনা সূত্রে। মনে করা হচ্ছে এখনও দুই থেকে তিন জন জঙ্গি সেখানে রয়েছে।

পাকিস্তানকে তথ্য পাচারের অভিযোগে গ্রেফতার করা হল দুই ভারতীয় জওয়ানকে। যোধপুর রেল স্টেশন থেকে তাঁদের গ্রেফতার করে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। জানা গিয়েছে, পাকিস্তানের এক মহিলা আইএসআই এজেন্টকে তাঁরা প্রতিনিয়ত তথ্য পাচার করছিল।

পুলিশের আধিকারিকদের তরফে জানানো হয়েছে, দু’জন জওয়ান পোখরান তাঁদের গ্রামের বাড়িতে যাচ্ছিলেন। মঙ্গলবার যোধপুর রেল স্টেশন থেকে গোয়েন্দা অফিসাররা তাদের হেফাজতে নিয়ে নেন।

আধিকারিকরা জানিয়েছেন, এই দুই ভারতীয় জওয়ান পাকিস্তানি মহিলার মধুচক্রের শিকার হয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাচার চলছিল। যোধপুর থেকে জয়পুর নিয়ে গিয়ে হেফাজতে নিয়ে তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

রাজস্থানের অতিরিক্ত ডিরেক্টর জেনারেল উমেশ মিশ্র জানিয়েছেন যে, প্রাথমিক তদন্ততে উঠে এসেছে যে দুই জওয়ান মধুচক্রের শিকার হয়েছিলেন। সূত্রের খবর, এই দুই জওয়ান হোয়াটসঅ্যাপ এবং ফেসবুক ব্যবহার করে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাচার করছিল।