শ্রীনগর: ফের সিআরপিএফ জওয়ানদের ওপর হামলা চালাল জঙ্গিরা। জম্মু কাশ্মীরের অনন্তনাগে বিজবেহারাতে হাইওয়ে সুরক্ষায় মোতায়েন করা একটি সিআরপিএফ পার্টির ওপর হামলা চালানো হয়েছে।

জঙ্গিদের হামলায় এক জওয়ান গুলি লেগে আহত হন। পরে মৃত্যু হয় তাঁর। পাশপাশি জঙ্গি হামলার জেরে অপর এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

উল্লেখ্য, সকালেই ৩ জঙ্গিকে নিকেশ করে সেনা। জম্মু কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলার ত্রালে সকালে গুলির লড়াই শুরু হয়। জেলার চেওয়া উল্লার গ্রামে জঙ্গি লুকিয়ে থাকার খবর পেয়ে ভারতীয় সেনাবাহিনী তল্লাশি শুরু করে। তখনই গুলির লড়াই শুরু হয়।

এদিকে, কাশ্মীর জোনের পুলিশ শুক্রবার সকালে ট্যুইট করে জানায়, এক জঙ্গিকে খতম করেছে সেনা। চেওয়া উল্লার এলাকায় এনকাউন্টার হয়েছে। আরও তথ্য মিলবে। পরে জানা যায় নিকেশ হয়েছে ৩ জঙ্গি।

বৃহস্পতিবারই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র জানায়, ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে পুলওয়ামায় ভয়াবহ হামলার পরে কিছু পদক্ষেপ পাকিস্তান নেয় ঠিকই, কিন্তু তা প্রয়োজনের তুলনায় যৎসামান্য। উল্লেখ্য ২০১৯ সালেই পাকিস্তানকে দেওয়া আর্থিক অনুদান বন্ধ করে আমেরিকা। ২০১০ সালে পাকিস্তান এনহ্যান্সড পার্টনারশিপ এগ্রিমেন্ট বা পেপা চুক্তির ভিত্তিতেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে আর্থিক অনুদান লাভ করত পাকিস্তান।

বরাবরই ভারত পাক আশ্রিত জঙ্গিদের বাড়বাড়ন্তের কথা বলে এসেছে। এই মার্কিন রিপোর্ট সেই দাবিকেই শিলমোহর দিল বলে মনে করা হচ্ছে।

ভারতীয় সেনার দাবি, পাক বাহিনীর ক্রমাগত সংঘর্ষবিরতি চুক্তি লঙ্ঘনের পিছনে অন্য উদ্দেশ্য রয়েছে। ক্রমাগত গোলাগুলি চালিয়ে ভারতীয় সেনাকে ব্যস্ত রাখার ফাঁকেই সীমান্ত দিয়ে জঙ্গি অনুপ্রবেশের ছক পাকিস্তানের। যদিও পাক সেনার সেই মতলব ভেস্তে দিতে দিনরাত সীমান্ত পাহারায় ব্যস্ত সেনা।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনাকালে বিনোদন দুনিয়ায় কী পরিবর্তন? জানাচ্ছেন, চলচ্চিত্র সমালোচক রত্নোত্তমা সেনগুপ্ত I