প্রতীকী ছবি

নয়াদিল্লি: দেশে ফের বাড়ল সংক্রমণ। সোমবার সকাল থেকে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮ টা অবধি দেশে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হলেন ৫২ হাজার ৫০ জন। এই সময়ে আরও মৃত্যু হয়েছে ৮০৩ জনের।

নতুন করে মৃত্যু ও আক্রান্তের জেরে দেশে বর্তমানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে ১৮ লক্ষ ৫৫ হাজার ৭৪৬। এর মধ্যে অ্যাক্টিভ কেস রয়েছে ৫ লক্ষ ৮৬ হাজারের বেশি। দেশে মোট সুস্থ হয়ে উঠেছে ১২ লক্ষ ৩০ হাজার ৫১০ জন। মোট মৃত্যু হয়েছে ৩৮ হাজার ৯৩৮ জনের।

অন্যদিকে সোমবার দেশ জুড়ে নয়া নির্দেশিকা জারি করল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। ৫ই অগাষ্ট থেকে সেই নতুন নিয়ম বলবৎ করা হবে বলে জানানো হয়েছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের নয়া নির্দেশিকা জানাচ্ছে ৫ তারিখ থেকে দেশ জুড়ে খুলে দেওয়া হচ্ছে জিম ও যোগা ইন্সিটিটিউটগুলি।

যোগ সংস্থা ও জিমগুলি তাদের সদস্য, গেস্ট ও কর্মীদের যাওয়া আসার ওপরেও নজর রাখবে। সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা বা মাস্ক পরার মতো বেশ কিছু নির্দেশ জারি করা হয়েছে।

এর পাশাপাশি করোনা আবহে বিদেশ থেকে আসা যাত্রীদের জন্য এদেশে প্রবেশের ক্ষেত্রে গাইডলাইন বেঁধে দিয়েছে কেন্দ্র সরকার। এর আগে ডিরেক্টর জেলারেল অফ সিভিল অ্যাভিয়েশন যে গাইডলাইন দিয়েছিল, তার সঙ্গেই বেঁধে দেওয়া হয়েছে আরও কয়েকটি নিয়ম।

বলা হয়েছে, প্রত্যেক ভ্রমণকারীকে ভ্রমণের অন্ততপক্ষে ৭২ ঘন্টা আগে newdelhiairport.in ওয়েবসাইটে নিজেদের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত তথ্য দিতে হবে।

তাদেরকে ওই ওয়েবসাইটে একটি প্রতিশ্রুতি দিতে হবে, যে তাঁরা ১৪ দিনের জন্য কোয়ারেন্টাইনে থাকবে। এখানে ৭ দিন থাকতে হবে সরকারি কোয়ারেন্টাইনে, এরপর আরও ৭ দিন নিজে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

যদি কেউ কোয়ারেন্টাইনে না থাকতে চান, তবে আরটি-পিসিআর পরীক্ষার নেগেটিভ রিপোর্ট জমা দিতে হবে। গুরুতর অসুস্থ, গর্ভবতী মহিলাদের ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হতে পারে।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও