নয়াদিল্লি: দেশে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ। প্রতিদিন রেকর্ড ব্রেক করছে করোনা ভাইরাসের বিস্তার। শুক্রবার সংক্রমণ ছড়ানোয় দেশে ফের নতুন রেকর্ড। গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত হলেন ২২ হাজার ৭৭১ জন। আরও মৃত্যু হয়েছে ৪৪২ জনের।

নতুন মৃত্যু ও সংক্রমণের জেরে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৬ লক্ষ ৪৮ হাজার ৩১৫ তে। এরমধ্যে অ্যাক্টিভ কেস রয়েছে ২ লক্ষ ৩৫ হাজারেরও বেশি। সুস্থ হয়েছেন ৩ লক্ষ ৯৪ হাজার মানুষ ও মৃত্যু হয়েছে ১৮,৬৫৫ জনের।

দেশের মধ্যে সংক্রমণের শীর্ষে এখনও মহারাষ্ট্র। সে রাজ্যে সংক্রমণ দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ৯২ হাজারে। মৃত্যু হয়েছে ৮ হাজার ৩৭৬ জনের।

দেশে মহারাষ্ট্রের পরেই করোনার নিরিখে তালিকায় দ্বিতীয় নম্বরে রয়েছে তামিলনাড়ু। এবার সেই রাজ্যেও আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেল ১ লক্ষের গণ্ডি। মৃত্যু হয়েছে ১৩৮৫ জনের।

পরিসংখ্যান জানাচ্ছে, তামিলনাড়ুতে বর্তমানে মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এমন মানুষের সংখ্যা ১ লক্ষ ২ হাজার ৭২১ জন। যার মধ্যে প্রায় ৫৮ হাজার মানুষ সুস্থ হয়ে গিয়েছেন। বর্তমানে সে রাজ্যে অ্যাক্টিভ কেস রয়েছে ৪২ হাজার ৯৫৫ টি।

অন্যদিকে ভারত বায়োটেকের ‘কো ভ্যাক্সিন’ ইতিমধ্যেই মানবদেহে ট্রায়ালের অনুমতি পেয়ে গিয়েছে। চলতি জুলাই মাসেই ‘ভারত বায়োটেকের’ তৈরি ‘কোভ্যাক্সিন’ টিকা মানবদেহে ট্রায়াল শুরু হচ্ছে। মোট দু দফায় চলবে এই পরীক্ষা। ছাড়পত্র মিলেছে ডিসিজিআই এবং কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ