নয়াদিল্লি: দেশে ফের সর্বোচ্চ হারে করোনা সংক্রমণ। শেষ ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ২৪ হাজারেরও বেশি মানুষ। মৃত্যু হয়েছে ৬১৩ জনের। এযাবৎকালে এই সংক্রমণ সর্বাধিক।

নতুন করে সংক্রমণের জেরে মোট সংক্রমণ পৌঁছেছে ৬ লক্ষ ৭৩ হাজারত ১৬৫ তে। এর মধ্যে অ্যাক্টিভ কেস রয়েছে ২ লক্ষ ৪৪ হাজার ৮১৪ টি। মৃত্যু হয়েছে মোট ১৯ হাজার ২৬৮ জনের। স্বাস্থ্য মন্ত্রক সূত্রে এখবর জানানো হয়েছে।

এই নিয়ে টানা নদিন দেশে করোনা সংক্রমণ ১৮০০০ এর বেশি হচ্ছে। জুলাই মাসের শুরু থেকেই ব্যাপক হারে ছড়াচ্ছে সংক্রমণ।

ইতিমধ্যেই দেশের মধ্যে করোনার সর্বোচ্চ সংক্রমণের রেকর্ড মহারাষ্ট্রে।মহারাষ্ট্রে করোনার সংক্রমণ দুই লক্ষের গন্ডি ছাড়িয়ে গেছে। সংক্রমণের নিরিখে এখন জার্মানিকেও পিছনে ফেলেছে মারাঠাভূম। বেড়ে চলা সংক্রমণে লাগাম পরাতে দিশেহারা উদ্ধব ঠাকরের প্রশাসন।

শনিবার রাত পর্যন্ত মহারাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ২ লক্ষ ৬৪। সর্বোচ্চ সংক্রমণের রেকর্ডের পাশাপাশি একদিনে এখনও পর্যন্ত মহারাষ্ট্রে মৃত্যুরও রেকর্ড হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মহারাষ্ট্রে ২৯৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। সব মিলিয়ে মহারাষ্ট্রে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮ হাজার ৬৭১।

অন্যদিকে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত গোটা দেশে ল্যাবের মাধ্যমে মোট করোনা পরীক্ষার সংখ্যা ৯০,৫৬,১৭৩। খুব তাড়াতাড়ি এই সংখ্যাটা এক কোটির ঘর ছাঁড়াবে বলে আশাবাদী কেন্দ্র। এদিন স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন গোটা দেশে ১০৫৬টি ল্যাবে করোনা পরীক্ষা হচ্ছে। এর মধ্যে ৭৬৮টি সরকারি ল্যাব ও ২৯৭টি বেসরকারি ল্যাব। করোনা পরীক্ষার সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ