নয়াদিল্লিঃ  এপ্রিলের ১২ তারিখের পর থেকে ছয়’বার ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছে রাজধানী শহর দিল্লি। বুধবার রাতে আবার একবার কেঁপে উঠল দেশের রাজধানী। এদিনের কম্পন প্রথমে নয়ডায় বোঝা গেলেও গোটা দিল্লিবাসী বুঝতে পেরেছেন ভূমিকম্প।

এদিনের কম্পন গোটা দিল্লি সহ ফরিদাবাদ এবং গুরুগ্রামেও অনুভূত হয়েছে। বুধবার রাত ১০টা ৪২ মিনিট নাগাদ কম্পন অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে যার মাত্রা ছিল ৩.২। ন্যাশনাল সেন্টার ফর সিসমোলজি থেকে তথ্য অনুযায়ী, নয়ডার দক্ষিণ-পূর্বে ১৯ কিলোমিটার দূরে ভূমিকম্পের উৎসস্থল যা দিল্লিরই অংশ।

বুধবার রাত ১০টা ৪২ মিনিট নাগাদ কম্পন অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে যার মাত্রা ছিল ৩.২। ন্যাশনাল সেন্টার ফর সিসমোলজি থেকে তথ্য অনুযায়ী, নয়ডার দক্ষিণ-পূর্বে ১৯ কিলোমিটার দূরে ভূমিকম্পের উৎসস্থল যা দিল্লিরই অংশ। ভূ-পৃষ্ঠ থেকে ৩.৮ কিলোমিটার গভীর থেকে এই কম্পন বোঝা গিয়েছে।

দুটি পরপর ভূমিকম্পের চারদিন কাটতে না কাটতেই দিল্লির পাশের জায়গা নয়ডা কেঁপে উঠেছে। হরিয়ানার রোহটাকে প্রথম কম্পন অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ৪.৬। উৎসস্থলের গভীরতা ৩.৩ কিলোমিটার। ৭-৮ সেকেন্ড ধরে ঘরের বিছানা, ফ্যান দুলতে থাকে বলে জানাচ্ছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। সেদিনই দ্বিতীয় একটি ভূমিকম্পের রিখটার স্কেলে মাত্রা ছিল ২.৯। রোহটাক থেকে দিল্লি মাত্র ৬০ কিমি। বুধবারের ভূমিকম্পে এই নিয়ে সাতবার কেঁপে উঠেছে দিল্লি। মৃদু ভূমিকম্পের জন্যই পরিচিত দেশের রাজধণী শহর দিল্লি।

এর আগে, মে মাসের ১০ তারিখে উত্তর-পূর্ব দিল্লির ওয়াজিরাবাদে ভূমিকম্প হয়। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৩.৫। এপ্রিল মাসের ১২ ও ১৩ তারিখ পরপর ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিল দিল্লি।

এপ্রিলের ১৩ তারিখের ভূমিকম্প বোঝা গিয়েছে। সোমবার রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ২.৭। সোমবার ঠিক দুপুর ১টা ২৬ মিনিটে এই কম্পন অনুভূত হয়। উৎসস্থলের গভীরতা ছিল ৫ কিলোমিটার।

তার আগের দিন অর্থাৎ এপ্রিলের ১২ তারিখে কম্পন বোঝা গিয়েছে রাজধানী দিল্লি সহ বিস্তির্ণ অঞ্চলে। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৩.৫। প্রায় পাঁচ সেকেন্ড ধরে কম্পন অনুভূত হয়েছে। পূর্ব দিল্লি ছিল এই ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল।

দিল্লি ডিসাস্টার ম্যানেজমেন্ট অথরিটি অনুযায়ী, দিল্লিতে ভূমিকম্পের হার সাধারণত ভূতাত্ত্বিক গঠনের সঙ্গে সম্পর্কিত বলেই দেখা দিয়েছে। সাধারণত দিল্লি-হরিদ্বার সেতুবন্ধ নামেও পরিচিত। একাধিকবার ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল হিসেবে সামনে এসেছে রাজধানী শহর দিল্লি।

আরও জানা গিয়েছে, দিল্লিতে ভূমিকম্পের হার সাধারণত ভূতাত্ত্বিক গঠনের সঙ্গে সম্পর্কিত যা ‘দিল্লি-হরিদ্বার সেতুবন্ধ’ (Delhi-Hardwar Ridge) নামেও পরিচিত। এটি দিল্লির উত্তরপূর্বে হিমালয় পর্বতের দিকে গঙ্গা-অববাহিকায় পলিজভূমির নীচের অংশে আরবল্লী পর্বতমালার এক্সটেনশনের সঙ্গে মিলিত হয়েছে।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV