কলকাতা: ফের ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল দেশ। বুধবার সকাল ৭ টা ১০ নাগাদ ভুমিকম্পে কেঁপে উঠল ভারত বাংলাদেশ সীমান্ত। রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৪.৩।

ন্যাশনাল সেন্টার ফর সিসমোলজি এই ভূমিকম্পের কথা জানিয়েছে। কয়েকদিন আগে উত্তর পূর্ব ভারত ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিল। এবার ভারত বাংলাদেশ সীমান্ত।

একটি সূত্র বলছে ঢাকা শহরের কাছে নেত্রাকোনা এই ভূমিকম্পের উৎসস্থল। এখনও কোনও ক্ষয় ক্ষতির খবর সামনে আসেনি। এমনিতেই নিসর্গ নিয়ে চিন্তায় আছে ভারতবাসী। এর মাঝে এই ভূমিকম্পে কিছুটা আতঙ্কিত মানুষ।

তবে এরই মধ্যে দিন কয়েক আগে ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিল দিল্লির একাধিক প্রান্ত। রিখটার স্কেলে এই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৪.৬।

ওই ভূমিকম্পের উৎসস্থল ছিল হরিয়ানার রোহতাক। উৎসস্থলের গভীরতা ছিল ৩.৩ কিলোমিটার। রাত ঠিক ৯ টা ৮ মিনিটে কম্পন অনুভূত হয়। বেশ কয়েক সেকেন্ড ওই কম্পন স্থায়ী হয়। উৎসস্থল দিল্লি থেকে ৬৫ কিলোমিটার দূরে।

লকডাউনে এর আগেও একাধিকবার কেঁপে উঠেছিল দিল্লি। এর আগে ১৫ মে উত্তর-পশ্চিম দিল্লির পীতামপুরা এলাকায় সকাল ১১টা বেজে ২৮ মিনিটে কম্পন অনুভূত হয়েছে।

এর আগে, মে মাসের ১০ তারিখে উত্তর-পূর্ব দিল্লির ওয়াজিরাবাদে ভূমিকম্প হয়। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৩.৫। এপ্রিল মাসের ১২ ও ১৩ তারিখ পরপর ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিল দিল্লি। ভূমিকম্প হয়েছিল এপ্রিলের ১৩ তারিখেও।

 

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।