কলকাতা: প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের আগাম জামিন মঞ্জুর করল কলকাতা হাইকোর্ট। রাজীব কুমারকে সিবিআই ডাকতে গেলে ৪৮ ঘণ্টা আগে নোটিশ দিতে হবে শহরের প্রাক্তন নগরপালকে।

সারদা মামলায় স্বস্তিতে কলকাতার প্রাক্তন পুলিস কমিশনার রাজীব কুমার। শর্তসাপক্ষে তাঁর আগাম জামিন মঞ্জুর করলো কলকাতা হাইকোর্ট। ৫০ হাজার টাকা করে দুটো ব্যক্তিগত বন্ডে ওই আইপিএস আধিকারিকের জামিন মঞ্জুর করা হয়েছে।

এদিনের রায়ে হাইকোর্ট জানিয়েছে, সবদিক খতিয়ে দেখে মনে করা হচ্ছে, রাজীব কুমারকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন নেই বলে মনে করছে আদালত। তাই তাঁর আগাম জামিনের আবেদন মঞ্জুর করা হল।

তবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাক পেলে রাজীব কুমারকে হাজিরা দিতে হবে বলে রায়ে স্পষ্ট জানিয়েছে বিচারপতি সইদুল্লা মুন্সি ও শুভাশিস দাশগুপ্তের ডিভিশন বেঞ্চ। তবে হাজিরার জন্য রাজীব কুমারকে ৪৮ ঘণ্টা সময় দিতে হবে বলে সিবিআইকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এখনও খোঁজ নেই রাজ্যের গোয়েন্দা প্রধান রাজীব কুমারের। ছুটির মেয়াদ শেষ হলেও কাজে যোগ দেননি। কোথায় আছেন তিনি জানে না সিবিআই। গ্রেফতারি এড়াতে রাজীব আগাম জামিনের জন্য আবেদন করেছেন কলকাতা হাইকোর্টে। সোমবার ফের হাইকোর্টে তার আগাম জামিনের শুনানি হলেও রায়দান স্থগিত রাখা হয়েছিল। মঙ্গলবার সকালেই তাঁর আগাম জামিনের আর্জি মঞ্জুর করে কলকাতা হাইকোর্ট।

গত বুধ, বৃহস্পতি ও শুক্রবার পরপর তিনদিন শুনানি হয়েছে। বিচারপতি সইদুল্লা মুন্সি ও বিচারপতি শুভাশিস দাশগুপ্তের ডিভিশন বেঞ্চে এই মামলার শুনানি হয়েছে। সিবিআই সূত্রে খবর পাওয়া গিয়েছিল, কলকাতা হাইকোর্টে প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার যদি আগাম জামিন পেয়ে যায়, তাহলে সেই রায়কে উচ্চ আদালতে চ্যালেঞ্জ করবে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। এখন সেই দিকেই নজর থাকবে সকলের।

এও জানা গিয়েছে, কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের খোঁজে এবার সিআরপিএফের সাহায্য নিতে চলেছে সিবিআই। টানা দুই সপ্তাহ ধরে রাজীবের খোঁজে তল্লাশি চালিয়ে আপাতত তল্লাশি বন্ধ রেখেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী এই সংস্থা। তবে মঙ্গলবারের এই সিদ্ধান্তের পর বোঝা  যাবে কোন দিকে মোড় নিতে চলেছে এই ঘটনা।