রিও দে জেনিরো: এবার মারণ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জৈর বলসোনারো। নিজের মুখে সেই কথা বিশ্ববাসীকে জানিয়েছেন তিনি। একটি টেলিভিশন সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, করোনা পরীক্ষা করা হলে রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।

জানা গিয়েছে, সোমবার প্রেসিডেন্ট জৈর বলসোনারো করোনা পরীক্ষা করা হয় এবং বলা হয় যে মঙ্গলবার রিপোর্ট পাওয়া যাবে। তবে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম আগেই জানিয়েছিল, ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জৈর বলসোনারোর মধ্যে করোনা উপসর্গ ছিল। উনি জ্বরে ভুগছিলেন।

এও জানা গিয়েছে, করোনা পরীক্ষার পরে হাসপাতাল থেকে ফেরার সময় গাড়ি থেকে নেমে সরকারের সপক্ষে একটি ইউটিউব চ্যানেলের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে তিনি জানিয়েছেন, “আমি হাসপাতাল থেকে ফিরছি কিন্তু সব ঠিক আছে”।

এই প্রসঙ্গে তিনি আরও জানা, “আমার ফুসফুসের স্ক্যান করা হয়েছে যেখানে সব পরিষ্কার বলেই জানা গিয়েছে”। মঙ্গলবার দুপুর ৩টে অবধি প্রেসিডেন্টের পাবলিক এজেণ্ডা লিস্ট খালি ছিল কারণ তিনি রিপোর্টের অপেক্ষায় ছিলেন।

তবে জানা গিয়েছে, একাধিকবার বলসোনারোকে করোনা ভাইরাসের পরিস্থিতিতে নিয়ম ভাঙতে দেখা গিয়েছে। জুনের শেষের দিকে জাজের এমন কথারও অমান্য করেছেন তিনি। শুধু তাই নয়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সোশ্যাল ডিসট্যানসিংয়ের নিয়মও তিনি সঠিকভাবে মেনে চলেননি।

করোনা ভাইরাসে এখনও অবধি শীর্ষস্থানে রয়েছে আমেরিকা, ঠিক তারপরেই রয়েছে ব্রাজিল। লাতিন আমেরিকার বৃহত্তম দেশে করোনা ভাইরাসে এখনও অবধি ৬৫০০০ মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

শেষ কিছু সপ্তাহে একাধিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে দেখা গিয়েছে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জৈর বলসোনারোকে। এমনকি কিছুদিন আগে জুলাই ৪ উদযাপনেও ব্রাজিলে আমেরিকার দুতের সঙ্গেও তাঁকে দেখা গিয়েছে। একাধিক ছবিতে দেখা গিয়েছে তিনি মাস্ক ছাড়াই রয়েছেন। মার্চ মাসে তাঁর করোনা পরীক্ষা করা হলে সেই সময় রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছিল ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জৈর বলসোনারোর।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ