কাঠমান্ডু: করোনা সংকটের মধ্যে নেপালে ফিরে এল ২০১৫ এর ভয়াবহ ভূমিকম্পের স্মৃতি। বুধবার সকালে কেঁপে উঠল কাঠমান্ডু থেকে ৫০ কিমি দূরের পূর্বদিকের মাটি।

ন্যাশনাল সেন্টার ফর সিসমোলজি জানাচ্ছে, ভোর ৫ টা ৪ মিনিট ৭ সেকেন্ড নাগাদ এই কম্পন অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৫.৪।

মাটি কেঁপে উঠতেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন সে সময় জেগে থাকা মানুষেরা। এক লহমায় তাঁদের মনে ফিরে আসে ২০১৫-র ভয়াবহ স্মৃতি। বেশ কিছু মানুষ বাড়ি ছেড়ে রাস্তায় বেরিয়ে আসেন। তবে এখন অবধি এদিনের ভূমিকম্পে কোনও ক্ষয় ক্ষতি বা মৃত্যুর খবর সামনে আসেনি।

উল্লেখ্য, চলতি বছরে নেপালে বেশ কয়েকটি ছোটখাটো কম্পনের ঘটনা ঘটলেও, নেপালবাসীর মনে এখনও তাজা রয়েছে ২০১৫ এর এপ্রিলের ভয়াবহ ভূমিকম্পের স্মৃতি। শুধুমাত্র সরকারি হিসেবেই সেই কম্পনে মৃত্যু হয়েছিল ৭৭৪৯ জনের। আহত ১৭ হাজারের বেশি। বেসরকারি হিসেবে সংখ্যা আরও বেশি।

ভারতে সেই ভূমিকম্পের আঁচ লাগলেও নেপালে ক্ষতি হয়েছিল কমপক্ষে ৩ বিলিয়ন ডলারের। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৭.৮। ভূমিকম্পের ফলে কাঠমাণ্ডু দরবার ক্ষেত্রের অট্টালিকা ও সৌধগুলি ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়। ১৮৩২ সালে নির্মিত ধরহরা মিনার ধ্বংসপ্রাপ্ত হলে সেই স্থানেই প্রায় ২০০ জনের মৃত্যু ঘটে।

সপ্তম পর্বের দশভূজা লুভা নাহিদ চৌধুরী।