রিও: পাঁচ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন৷ সুতরাং বিশ্বজয়ের পর ফুল-মিষ্টিতে নায়ক বরণের ছবি দেখতে অভ্যস্ত ব্রাজিল৷ তবে এবার ভিন্ন অভিজ্ঞতা হল নেইমারদের৷

গতবার দেশের মাটিতে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে জার্মানির কাছে ১-৭ গোলে হারের পর ব্রাজিলিয়ান ফুটবলারদের অল্প-বিস্তর সমালোচনা হজম করতে হলেও এমন ছবি দেখতে হয়নি৷ এবার কোয়ার্টার ফাইনালে বেলজিয়ামের কাছে ১-২ গোলে হেরে রাশিয়া বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিতে হয় ব্রাজিলকে৷ ফেভারিট হওয়া সত্ত্বেও নেইমারদের এমন ব্যর্থতা হজম করতে পারেনি ব্রাজিলিয়ান সমর্থকরা৷ স্বাভাবিকভাবেই তাদের ক্ষোভ গিয়ে পড়ে জাতীয় ফুটবল দলের উপর৷

রাশিয়া থেকে ফিরে দেশে পা দিয়েই ব্রাজিলিয়ান ফুটবলাররা সমর্থকদের সেই ক্ষোভের আঁচ পেয়ে গেলেন৷ বিমানবন্দর থেকে ব্রাজিলের টিম-বাস রাস্তায় বেরোন মাত্রই পচা ডিমে স্বাগত জানানো হয় নেইমার-কুটিনহো-জেসুসদের৷ ক্ষুব্ধ সমর্থকদের একটা ছোট্ট দল টিম-বাস লক্ষ্য করে ডিম ছুঁড়তে থাকে৷ যদিও তাতে ফুটবলারদের আঁতে ঘা লাগলেও শারীরিক চোট-আঘাতের কোনও প্রশ্ন ছিল না৷

এমন ছবিটা অবশ্য প্রত্যাশিত ছিল ব্রাজিলিয়ান তারকাদের কাছে৷ বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেওয়ার পরেই কুটিনহোরা জানিয়েছিলেন যে, তাদের উপর সমর্থকদের ক্ষুব্ধ হওয়াই স্বাভাবিক৷ আগের দিন উইলিয়ান প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারার জন্য সমর্থকদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন৷ নেইমারও আগেই জানিয়েছেন যে, বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়াটা তাঁর জীবনের সব থেকে দুঃখের মুহূর্ত৷

এমন আবেগঘন বার্তাতেও অবশ্য মন গলেনি ব্রাজিল অনুরাগীদের৷ টিম-বাসে ডিম ছুঁড়েই হতাশার বহিঃপ্রকাশ ঘটান তাঁরা৷ যেমনটা ইঙ্গিত মিলছে, সামনের কয়েকদিনে আরও লাঞ্ছনা হজম করতে হতে পারে নেইমারদের৷

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।