স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বিতর্কিত মন্তব্য করে সমালোচিত নাট্য ব্যক্তিত্ব তথা মন্ত্রী ব্রাত্য বসু। মঙ্গলবার রাতে দমদমের একটি ক্লাবের অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখার সময় তিনি সিপিএম দলের সদস্যদের ‘ডাল কুত্তা’ বলে মন্তব্য করেছেন। এরফলে দমদমের বিধায়ক ব্রাত্য বসুর মন্তব্যের সমালোচনা শুরু হয়েছে নানা মহলে৷

পড়ুন আরও- সিপিএম-কে ‘ডাল কুত্তার দল’ বললেন ব্রাত্য বসু

দমদমের সেই অনুষ্ঠানের ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যদিও ভিডিওর সত্যতা যাচাই করেনি কলকাতা ২৪x৭। ভিডিও-তে শোনা যাচ্ছে, ব্রাত্য বসু বলছেন, “সিপিএম ডাল কুত্তার দল। গলায় গেরুয়া ফেট্টি পরে সন্ত্রাস চালাচ্ছে। এই হার্মাদদের, ডাল কুত্তাদের আপনারা অনুগ্রহ করে ক্ষমা করবেন না। পশ্চিমবঙ্গের সম্প্রীতিময় ও সাংস্কৃতিক পরিবেশকে অশান্ত করছে তারা। আগামী দিনে মানুষ এদের ক্ষমা করবে না।”

সিপিএমকে ‘ডাল কুত্তা’ বলে বিতর্কিত মন্তব্য করার জেরে মুখ খুললেন সিপিএম নেতা বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। অধ্যাপক বিষ্ণু বসু ছিলেন বামপন্থী কিন্তু তিনি তাঁর ছেলে ব্রাত্য বসুকে সঠিক মতাদর্শে মানুষ করতে পারেননি বলেও খোঁচা দিয়েছেন তিনি। তাঁর মতে, ব্রাত্য নিজের পারিবারিক ঐতিহ্য ভুলে গিয়েছেন।

ব্রাত্য বসুর মন্তব্যকে ধিক্কার জানিয়ে সিপিএম নেতা বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য kolkata24x7-কে বলেন, “যেদিন থেকে ব্রাত্য বসু তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেছেন। সেদিন থেকে তিনি তাঁর রুচিবোধ, সংস্কৃতি, সভ্যতা এবং পারিবারিক ঐতিহ্য বিসর্জন দিয়েছেন। সেজন্য তাঁর পক্ষে এমন মন্তব্য করা খুব আশ্চর্যের কিছু নয়। ’’

ব্রাত্য বসুর পারিবারিক ঐতিহ্য ভুলে যাওয়া প্রসঙ্গে বিকাশবাবু আরও বলেন, “তিনি ভুলে গিয়েছেন, তাঁর পিতৃদেব সিপিআইএমের ঘনিষ্ঠ মানুষ ছিলেন। সেই মতাদর্শে বিষ্ণু বসু তাঁর ছেলেকে তৈরি করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক ভাবে ছেলে খারাপ পথে চলে গিয়েছেন! ডাল কুত্তা বলুন, আর যাই বলুন তাতে কম্যুনিস্ট পার্টির কিছু যায় আসে না। বরং তিনি নিজেই নিজের আত্মপরিচয় দিলেন তাঁর স্বজনকে উল্লেখ করে।”