নয়াদিল্লি: প্রথমবার সুখোই যুদ্ধবিমান থেকে ছোঁড়া হল সুপারসনিক ব্রহ্মোস মিসাইল। বিশ্বের দ্রুততম এই মিসাইল আর অত্যাধুনিক সুখোই-এর সাফল্যে বিশ্ব রেকর্ড করল ভারত। শত্রুপক্ষের উপর সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালাতে আরও বেশি করে প্রস্তুত হল ভারত। ডিআরডিও ও বায়ুসেনার এই সাফল্যকে অভিবাদন জানিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারামণ।

সুখোই 30MKI ফাইটার জেটের রেঞ্জ ৩২০০ কিলোমিটার। এদিনের পরীক্ষায় সাফল্যের জেরে ভারত এবার জল, স্থল এবং আকাশ তিন জায়গা থেকেই মিসাইল উৎক্ষেপণ করতে সমর্থ হল। ভারতে, এমনকি বিশ্বের মধ্যে প্রথমবার সুখোই বিমান থেকে ব্রহ্মোস উৎক্ষেপণ করা হল।

বঙ্গোপসাগরে টার্গেট করে এদিন মিসাইল উৎক্ষেপণ করা হয়। শব্দের থেকে তিনগুণ বেশি গতিতে গিয়ে সমুদ্রে পড়ে এটি। এর ফলে যে যুদ্ধ পরিস্থিতিতে মোকাবিলা করার জন্য আরও বেশি শক্তিশালী হয়ে উঠল ভারতীয় বায়ুসেনা। ট্যুইট করে ডিআরডিও-কে অভিনন্দন জানালেন নির্মলা সীতারামণ।

ভারতের ডিআরডিও ও রাশিয়ার এনপিওএম যৌথ উদ্যোগে এই মিসাইল তৈরি করেছে। বায়ুসেনার তরফ থেকে আগেই জানানো হয়েছিল, ব্রহ্মোসের সফল উৎক্ষেপণ সম্ভব হলে মোট ৪২টি সুখোই ফাইটার জেটকে ব্রহ্মোস মিসাইলে সাজানো হবে। এখনও পর্যন্ত রাশিয়ার থেকে ২৪০টি সুখোই যুদ্ধবিমান পেয়েছে ভারত। মোট ১২ বিলিয়ন ডলারে ২৭২টি ফাইটার জেট পাওয়ার কথা।