নয়াদিল্লি: ভারত ও রাশিয়া যৌথ উদ্যোগে তৈরি করেছে ব্রহ্মোস। যার রেঞ্জ ৪০০ কিলোমিটার। সেই রেঞ্জ আরও ১০০ কিলোমিটার বাড়িয়ে ৫০০ কিলোমিটার করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

রাশিয়ান সংস্থা জানিয়েছে, ৫০০ কিলোমিটার রেঞ্জ করার জন্য বাড়ানো হবে গতি। বর্তমানে এই মিসাইলের গতি বাতাসের গতিবেগের তুলনায় ২.৮ গুন বেশি। সেটি বাড়িয়ে ৪.৫ গুন করা হবে। আধুনিকীকরণের মাধ্যমে হাইপারসাউন্ড মিসাইল বানানো হবে বলেও জানিয়েছে ওই সংস্থা।

রিপোর্ট বলছে, আগামী কয়েক বছরে ভারতের অস্ত্র-ভাণ্ডারে আসছে আরও বেশি সংখ্যায় ব্রহ্মোস সুপারসনিক মিসাইল। যে সংস্থা এই মিসাইল তৈরি করে, তারাই এই খবর প্রকাশ করেছে। ভারত ও রাশিয়ার দুই সংস্থা যৌথ উদ্যোগে এই মিসাইল তৈরি করে। রাশিয়ান সংস্থা এরোস্পেশ লিমিটেডের তরফে জানানো হয়েছে, ভারত এই অস্ত্র ভারত ও রাশিয়ার কোনও বন্ধু দেশকে বিক্রিও করতে পারে।

সম্প্রতি চিন সীমান্তে সবথেকে বেশি গতিসম্পন্ন এই মিসাইল মোতায়েন করা সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত। এর গতি হবে ৩০০০ কিলোমিটার/ ঘণ্টা। আর এতেই আতঙ্ক বেড়ে গিয়েছে চিনের। অন্ধ্রপ্রদেশের সীমান্তে এই মিসাইল রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। রাখা হতে পারে কাশ্মীরেও।

পাহাড়ের আড়ালে লুকিয়ে থাকা শত্রুদেরও সহজেই টার্গেট করা যায় এই মিসাইলের মাধ্যমে। ভারতীয় সেনাবাহিনীর পাঁচটি রেজিমেন্টের প্রত্যেকটিকে ১০০টি করে মিসাইল আছে। ২০০৭ থেকে ব্রহ্মোস ব্যবহার করছে ভারত।