স্টাফ রিপোর্টার,বারাকপুর: ফের বোমাবাজির ঘটনায় উত্তপ্ত উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়া এলাকা। এবার বোমা পড়ল ভাটপাড়া পুরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর মনোজ গুহর বাড়িতে। জগদ্দল স্টেশন রোডে বাড়ি ওই তৃণমূল কাউন্সিলরের। বুধবার গভীর রাতে মনোজ গুহর বাড়িতে দুষ্কৃতীরা পরপর দুটি বোমা মারে বলে অভিযোগ।

জানা গিয়েছে, একটি বোমা মনোজ বাবুর বাড়ির ভিতরে ঢুকে যায়। এই ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন ওই তৃণমূল কাউন্সিলরের পরিবারের সদস্যরা। যখন এই বোমাবাজির ঘটনা ঘটে, তখন মনোজ বাবুর ভাইয়ের স্ত্রী ঘরে কাজ করছিলেন। আকস্মিক এই ঘটনায় তিনি ভয়ে হচকিয়ে যান।

মনোজ গুহর অভিযোগ, “বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা এই হামলা করেছে। স্থানীয় বিজেপি বিধায়ক পবন সিং’র আশ্রিত দুষ্কৃতীরা এই ঘটনা ঘটিয়েছে।” যদিও বিজেপির তরফে এই ঘটনার অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছে। বিজেপির দাবি, তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠী কোন্দলের জেরে এই ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। এই বিষয়ে জগদ্দল থানার পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। যদিও এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

এদিকে তৃণমূল কাউন্সিলরের বাড়িতে বোমা বাজির ঘটনা ঘিরে ফের নতুন করে রাজনৈতিক উত্তেজনা ছড়িয়েছে জগদ্দল স্টেশন রোড এলাকায়। অন্যদিকে, একইদিনে জগদ্দলের কেবিন রোডে পেশায় ব্যবসায়ি সক্রিয় তৃণমূল কর্মী অচিন্ত্য মজুমদারের বাড়িতেও বোমাবাজির ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়।

ওই ব্যবসায়ির অভিযোগ, বুধবার দুপুরে এবং রাতে দুই দফায় তাঁর বাড়িতে বোমাবাজি করে দুষ্কৃতীরা। তিনি বলেন, “যেহেতু তিনি সক্রিয় তৃণমূল কংগ্রেস দল করে, সেই কারণে তাঁর বাড়িতে বোমা মারা হয়েছে। বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা এই বোমাবাজির ঘটনা ঘটিয়েছে।” যদিও এই ঘটনা প্রসঙ্গে বারাকপুর সাংগঠনিক জেলার সভাপতি উমাশঙ্কর সিং বলেন, “তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলের জেরে এই ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় বিজেপির কোনও হাত নেই।”