ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: ভারতীয় রেলওয়েতে অনলাইন বুকিংয়ের পারদ উর্দ্ধমুখী৷ সাধারণ মানুষ প্রযুক্তিকে গ্রহণ করছে৷ সেই ছবিই এবার দেখা গেল৷ ২০১৬-১৭ সালে মোট অনলাইন টিকিট সংরক্ষণের পরিমান ছিল ৬০ শতাংশ৷ কিন্তু, ২০১৭-১৮ তে দেখা গিয়েছে একেবারে অন্ যদৃশ্য, বুকিং হার বেড়ে পৌঁছেছে ৬৬ শতাংশে৷ আজ রাজ্যসভায় এমনটাই জানিয়েছেন রাজনীতিবিদ রাজেন গোহেন৷ যেটি অবশ্যই একটি ইতিবাচক দিক৷

২০১৮ সালের জুন পর্যন্ত মোট টিকিট (সংরক্ষিত) বুকিংয়ের ৬৮ শতাংশ টিকিট ডিজিটাল মাধ্যমকে ব্যবহার করে বুক করা হয়েছে৷ গোহেন বলেন, মানুষের মধ্যে ডিজিটাল বুকিং মাধ্যমটিকে ব্যবহারের প্রবণতা বাড়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে৷ যেটি পরোক্ষভাবে বাড়াবে ডিজিটাল লেনদেনকে৷ সম্প্রতি, ক্যাটারিংয়ের ক্ষেত্রেও ডিজিটাল পেমেন্ট মোডের (পিওএস মেসিন) ব্যবহারকে বাড়ানোর চেষ্টায় রত রেল দফতর৷

রেলওয়ে টিকিট বুকিংয়ের জন্য রয়েছে একাধিক পেমেন্ট মাধ্যম৷ যার মধ্যে নেট ব্যাংকিং, ক্রেডিট এবং ডেবিট কার্ড, ই-ওয়ালেট উল্লেখযোগ্য৷ মাধ্যমগুলি সর্ম্পকে বিশদে জানতে চোখ রাখুন আইআরসিটিসির অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে৷ গোহেন যোগ করেন, ‘২০১৬ সালের নভেম্বর (২৩) থেকে অনলাইন টিকিট বুকিংয়ের যাবতীয় চার্জকে অপসারণ করা হয়েছে৷ ডিজিটাল পেমেন্টসের প্রচারই অবশ্য এর মূল কারণ৷ সুবিধাটির বর্ধিত সময়সীমা থাকছে ৩১ আগস্ট, ২০১৮৷’