কাঁকিনাড়া: ফের বোমাবাজি উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়া এলাকায়। সপ্তদশ লোকসভা ভোটের ফলাফলের পর থেকেই শুরু হয়েছে গন্ডগোল। রাজনৈতিক পালাবদলের সাথে সাথেই পরিস্থিতিতে বদল এসেছে। বৃহস্পতিবারের পর ফের ব্যাপক বোমাবাজিতে থমথমে ভাটপাড়া। শনিবারের ঘটনায় গোটা এলাকা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করে রাখা হয়েছে।

পরপর বোমাবাজিতে এলাকা শুনশান। এই ঘটনার জেরে গোটা এলাকা থমথমে। বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পরায় অন্ধকারে রয়েছে গোটা এলাকা। তারই মধ্যে চলছে বোমাবাজি। এই ঘটনার পর এলাকায় চলছে পুলিশি টহল। রাস্তা ঘাট শুনশান। বলাবাহুল্য যে, পরপর এইরকম ঘটনায় স্বাভাবিক জনজীবন কিছুটা ব্যহত।

ব্যবসায়ীরা আতঙ্কে দোকানপাট সব বন্ধ রেখেছে। রাজনৈতিক হানাহানি, মানুষ খুন, বোমাবাজি কয়েক দিন ধরে লেগেই রয়েছে এখানে। এর আগেও টানা বেশ কয়েকদিন সাধারণ ব্যবসায়ীদের পেশা স্থগিত হয়ে যায় একই কারণে। প্রাণ হারায় দুই রাজনৈতিক কর্মী।

শনিবারের ঘটনায় বোমায় জখম হয়েছে কয়েক জন। আহতদের ভর্তি করা হয়েছে ভাটপাড়া হাসপাতালে। নিত্যদিনের এই ঘটনায় আতঙ্কিত এলাকার বাসিন্দারা সকলেই। পরিস্থিতি ভয়াবহ।

বৃহস্পতিবার বাদল সিংয়ের স্ত্রী প্রিয়াঙ্কা সিং তার ছোট এক মাসের শিশুকে নিয়ে ঘরে ছিলেন। শিশুটি ঘুমাচ্ছিল বলে জানা যায়। হঠাৎই বাদল সিংয়ের টালির চালে বোমা পড়ে বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন প্রিয়াঙ্কা দেবী। সঙ্গে সঙ্গে তিনি তার সন্তানকে বাঁচাতে কোন ক্রমে ঘর থেকে বাইরে বেরিয়ে আসেন। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে আসে ভাটপাড়া থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী । ঘটনাস্থলে পুলিশ আসলে পুলিশ কর্মীদের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেন এলাকার বাসিন্দারা।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব