স্টাফ রিপোর্টার, বহরপুর: ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল মুর্শিদাবাদের ডোমকল৷ ব্যাপক বোমাবাজিতে গুরুতর জখম হল এক শিশু সহ পাঁচ৷ ঘটনায় আহতদের মধ্যে শিশুটি বাদে বাকিরা তৃণমূল সমর্থিত বলে দাবি করেছে শাসক দল৷ কংগ্রেসের দিকে অভিযোগ আঙুল তুলেছে তৃণমূল নেতৃত্ব৷

আরও পড়ুন- পুরাতন মালদহ পুরসভা তৃণমূলের থেকে ছিনিয়ে নেওয়ার দাবি বিজেপির

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এলাকার বাসিন্দারা পটকা ফাটাচ্ছিলেন৷ সেই সময় হঠাৎ কিছু দুষ্কৃতী এলাকায় বোমাবাজি করে৷ ঘটনায় শিশু সহ পাঁচ জন গুরুতর আহত হয়েছেন৷ তাঁদের উদ্ধার করে প্রথমে ডোমকল মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করা হয়৷ পরে সেখান থেকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়৷

আরও পড়ুন- অভিযোগের চাপে দলের পর্যালোচনা বৈঠকে ছেড়ে বেরিয়ে গেলেন মমতার মন্ত্রী

স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি আহতরা তৃণমূল সমর্থক৷ এই বোমাবাজির ঘটনায় কংগ্রেসের দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। তাদের অভিযোগ, গত লোকসভা নির্বাচনে এই এলাকায় ভালো ফল করেছে তৃণমূল কংগ্রেস আর এর জেরেই কংগ্রেস পরিকল্পনা করে এই বোমাবাজির ঘটনা ঘটিয়েছে।

আরও পড়ুন- বিজেপির কার্যকর্তার বাড়িতে বেআইনি অস্ত্র কারখানা, গ্রেফতার তিন

যদিও তৃণমূল কংগ্রেসের তোলা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছে কংগ্রেস নেতৃত্ব। কংগ্রেসের পাল্টা অভিযোগ শাসক দলের গোষ্ঠী দ্বন্দ্বের জেরেই বোমাবাজির ঘটনা ঘটেছে। এই বোমাবাজির ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। কি কারণে এই বোমাবাজির ঘটনা তার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।