স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: বন্ধ কারখানায় কাঠ কুড়াতে গিয়ে বোমা ফেটে জখম হলেন এক টোটো চালক৷ ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার পলতা রেল স্টেশন সংলগ্ন বেঙ্গল এনামেলে৷ জখম ওই টোটো চালকের নাম নবীন মোল্লা৷ বাড়ি পলতা রেল স্টেশন সংলগ্ন ত্রিনাথ পল্লী এলাকায়৷

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, দীর্ঘ দিন ধরে বন্ধ রয়েছে বেঙ্গল এনামেল কারখানাটি৷ নবীন অন্যান্য দিনের মতোই ওই কারখানার পরিত্যক্ত জমিতে কাঠ কুড়োতে গিয়েছিল।ওই কারখানার ভিতরে পরিত্যক্ত জমির জঙ্গলে কাঠ কুড়াতে যান অনেক স্থানীয় বাসিন্দাই। কাঠ কুড়োতে গিয়ে কৌটো বোমা ফেটে আহত হন নবীন মোল্লা নামের ওই টোটো চালক৷ স্থানীয় বাসিন্দারা বোমা ফাটার শব্দ শুনে পরিত্যক্ত ওই জমিতে ছুটে যান। গিয়ে দেখেন কালো ধোঁয়ায় ঢেকে গিয়েছে গোটা বেঙ্গল এনামেল চত্বর৷ পাশেই রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে কাতরাচ্ছে জখম নবীন। স্থানীয়রাই নবীনকে উদ্ধার করে বারাকপুর বিএন বসু মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করে।

ওই যুবকের হাতে, পায়ে ও চোখে মারাত্মক আঘাত লেগেছিল বলে চিকিৎসকরা জানান। বোমায় জখম যুবকের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় পরে তাঁকে আরজিকর হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। এদিকে এই ঘটনার পর টিটাগড় থানার পুলিশ ওই বন্ধ কারখানার ভিতরে অভিযান চালায়৷ ঘটনাস্থল থেকে আরও একটি তাজা বোমা উদ্ধার হয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয়দের অনুমান, স্থানীয় কুখ্যাত দুষ্কৃতীরা ওই বোমাগুলি জঙ্গলে ঘেরা পরিত্যক্ত জমিতে লুকিয়ে রেখেছিল। এলাকাবাসীদের দাবি, অবিলম্বে ওই কুখ্যাত দুষ্কৃতীদের গ্রেফতার করুক পুলিশ। টিটাগড় থানার পুলিশের সঙ্গে যৌথভাবে এই ঘটনার তদন্তে নেমেছে নোয়াপাড়া থানার পুলিশও।