পর্দার চরিত্ররা তাঁদের আলাদা আলাদা ইমেজ দিয়েছে৷  কেউ যদি অ্যাংরি ইয়ংম্যান হন তো কেউ কিংঅফ রোমান্য়ষ কেউ যদি হন রাফ অ্যান্ড টাফ, তবে আরএক জন চকোলেট বয়৷ তবে বাস্তবে সব নায়করা মোটেও তাঁদের ইমেজ মাফিক নন৷ একই কথা খাটে নায়িকাদের জন্য৷ রুপোলি পর্দার ছায়াশরীর পেরিয়ে তাঁরা য়খন রক্তমাংসের তখন তাঁরা অনেকটাই আলাদা৷ তাঁদের সে রূপ ধরা পড়ে বলিপার্টির অন্দরমহলে৷

বলিপার্টির অন্দরে একেবারে নিজস্ব রূপে দেখা মেলে বলি সেলেবদের৷ তা দেখে হয়তো চমকে যাবেন তাঁদের ফ্যানরাও৷ যে সোনম কাপুরকে ফ্যাশন সচেতন হিসেবে দেখতেই অভ্যস্ত বলিপাড়া, পার্টির অন্দরমহলে তিনিই অতো ফ্যাশনের ধার ধারেন না৷ বরং অ্যালকোহলে তাঁর যারপরনাই আসক্তি৷Sonam-Kapoor2

খোশমেজাজের পার্টিতে শক্তি কাপুর অনায়াসে চুমু খান বীণা মালিককে৷ বলিপাড়ার ভিলেনের কাজকম্মো দেখে বীণার তো চোখ কপালে!

Shakti-Kapor-Veena-Malik

আমিশা প্যাটেলও অ্যালকোহলিক হিসেবে পার্টি লাভারদের কাছে পরিচিত৷ তা সে নিয়ে অবশ্য তাঁর বিন্দুমাত্র লুকোচুরি নেই৷ বরং বেশ তারিয়েই তা উপভোগ করেন তিনি৷

Ameesha-Patel

 

কম যান না বিদ্যা বালানও৷ এমনিতে তুখোড় অভিনেত্রী, পর্দায় তার অন্যরকম ইমেজ আছে৷ পর্দায় সে ইমেজ যেমন ভাঙতে জানেন, তেমনই পর্দাযর বাইরেও কোনও ইমেজের ধার ধারেন না৷ তাই একতা কাপুরকে সঙ্গে নিয়ে বিন্দাস মেতে ওঠেন নাচে৷

Vidya-Balan-Ekta-Kapoor (1)

রণবীর সিং তো এমনিতেই মজা-মস্করা করতে ভালোবাসেন৷ আর পার্টি হলে তো কথাই নেই৷ তাঁর হাজার রকম কাণ্ডকারখানায় মশগুল থাকেন পার্টিতে উপস্থিত প্রায় সকলেই৷

Ranveer-SIngh

 

কখনও সখনও পার্টির পাগলামি মাত্রাও ছাড়ায়৷ অবশ্য সবই উপভোগের মেজাজে৷ তারই ঝলক দেখা যায় মালাইকা অরোরা খান কিংবা রিয়া সেনদের ক্ষেত্রে৷  মিকা সিং, রাখি সওয়ন্তের চুমু কাণ্ড আর কেইবা ভুলেছে!

Mika-Singh-Rakhi-Sawant

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।