স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: অবশেষে খোঁজ মিলল অভিশপ্ত চেয়ার কারখানার নিখোঁজ শ্রমিকদের৷ তবে মৃত অবস্থায়৷ ভস্মীভূত কারখানা থেকে ধ্বংসস্তুপ সরতেই মিলল একাধিক দেহাংশ৷ অর্থাৎ কারখানায় আগুন নাগার পর পালাবার সুযোগটুকু পাননি ওই শ্রমিকরা৷ সেখানেই মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে তাঁদের তেমনই মনে করা হচ্ছে৷

উত্তর ২৪ পরগনার নিউ বারাকপুরের যুগবেরিয়া বোর্ড ঘর অঞ্চলে চেয়ার কারখানায় ধ্বংসস্তুপ সরানোর কাজ চলছে৷ বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের ৩৮ জন কর্মী ওই অভিশপ্ত কারখানার ভিতরে কাজ করে চলেছেন৷ দমকলের একটি ইঞ্জিন এদিনও ওই কারখানায় হঠাৎ জ্বলে ওঠা আগুন ১৫ মিনিটের চেষ্টায় নিয়ন্ত্রনে এনেছে। কারখানার মালিকপক্ষের কোন হদিশ পাওয়া যায়নি।

বারাকপুরের মহকুমা শাসক আবুল কালাম আজাদ ইসলাম বলেন, ‘৩৮ জন বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের কর্মীরা কাজ করছেন৷ দুই মালিকের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে । পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমেছে।’

এদিকে জানা গিয়েছে, এই চেয়ার কারখানায় ২০১২ সালে একবার ভয়াবহ আগুন লেগেছিল। তবে সেই ঘটনার সময় কোন প্রাণহানির ঘটনা ঘটেনি। কিন্তু সেই ঘটনা থেকেও শিক্ষা নেয়নি এই কারখানার মালিকপক্ষ। এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় পলাতক রয়েছে কারখানার ম্যনেজারও। কারখানাটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় কাজ হারিয়েছেন ২০০ জন শ্রমিক।