স্টাফ রিপোর্টার, ব্যারাকপুর: হাত পা কাটা মুন্ডুহীন অজ্ঞাত পরিচয় এক মহিলার মৃত দেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল উত্তর ২৪ পরগনার পলতায়।

শনিবার সন্ধেয় ইছাপুর ও পলতার মাঝখানে পলতা এয়ার ফোর্স গেটের সামনে ওই দেহ উদ্ধার হয়েছে। ঘোষ পাড়া রোডের উপর থেকে ওই মুন্ডুহীন দেহ উদ্ধার হয়। শনিবার সকাল থেকেই এয়ার ফোর্স গেট সংলগ্ন এলাকায় স্থানীয় মানুষ দুর্গন্ধ পাচ্ছিলেন। প্রথমে তারা কাপড় দিয়ে ঢাকা অবস্থায় একটি মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেন। আর সেখান থেকেই প্রচন্ড দুর্গন্ধও বের হচ্ছিল বলে, এলকারা বাসিন্দারাই পুলিশে খবর দেন।

এরপর নোয়াপাড়া থানার পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ওই মৃতদেহ থেকে কাপড় সরিয়ে দেখেন এক মহিলার হাত পা ও মাথা কাটা মৃতদেহ পড়ে রয়েছে। নোয়াপাড়া থানার পুলিশ ওই অজ্ঞাত পরিচয় মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়ে দেয়।

এই দেহ উদ্ধার হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়তেই ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন উত্তর ব্যারাকপুর পুরসভার বিদায়ী উপ প্রধান পারমিতা বসু সরকার। তিনি বলেন “আমি খবর পেয়ে এখানে এলাম, অন্ধকারে ভালো করে দেখা না গেলেও এখান থেকে একটি মাথা কাটা ও হাত পা কাটা মৃত দেহ উদ্ধার হয়েছে। আমাদের এখানে এরকম আগে ঘটেনি, তবে দেখে মনে হচ্ছে বাইরে থেকে কেউ বা কারা এসে এই মৃত দেহ টি এখানে ফেলে গেছে বলেই আমাদের ধারনা।”

স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি লক ডাউন চলার ফলে ঘোষ পাড়া রোড সংলগ্ন দোকান পাট সন্ধ্যায় তাড়াতাড়ি বন্ধ হয়ে যায় ফলে এই মৃত দেহ টি কেউ ফেলে গিয়ে থাকতে পারে ,দুই দিন ধরে স্থানীয় দোকান দারেরা একটা কাপরে ঢাকা অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেছিলেন। কিন্তু আজ সকাল থেকে দুর্গন্ধ বের হওয়ায় পুলিশে খবর দিলে তারা এসে কাপর সরিয়ে মাথা ও হাত পা কাটা এক মহিলার মৃতদেহ উদ্ধার করেছেন।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও