সৌরভ দেব, জলপাইগুড়ি : নদীর পার থেকে এক ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ালো ময়নাগুড়ি এলাকায়। বৃহস্পতিবার সকালে ময়নাগুড়ির ধরলানদীর পার থেকে উদ্ধার হয় এক ব্যক্তির মৃত দেহ। মৃতের নাম সঞ্জয় সরকার (৩৮)। বাড়ি জলপাইগুড়ির হাসপাতাল পাড়া এলাকায়। স্থানীয়সূত্রে জানা গিয়েছে, সঞ্জয় বাবুর শ্বশুরবাড়ি ময়নাগুড়ির ভোটপাট্টি এলাকায়। বুধবার রাতে তিনি একাই ভোটপাট্টি থেকে জলপাইগুড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেন। এরপর থেকেই তাকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না বলে পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে। এদিন সকালে স্থানীয় বাসিন্দারা ধরলা নদীর পারে সঞ্জয় বাবুর মৃত পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেন। ময়নাগুড়ি থানার পুলিশ গিয়ে মৃত দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।