নয়াদিল্লি: করোনার রাশ টানতে বিভিন্ন জায়গায় লকডাউন শুরু হয়েছে। সাধারণ মানুষ বাইরে যাওয়াতে জারি হয়েছে নিষেধাজ্ঞা। কিন্তু ব্যাঙ্কের মত জরুরি পরিষেবার জন্যের নানা সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে সাধারণ মনুষকে। তাই করোনা সংকটে ডিজিট্যাল পেমেন্টর উপর জোর দেওয়া হচ্ছে। এবার গ্রাহকদের সুবিধার্থে ব্যাঙ্ক অফ বরোদা (Bank of Baroda) কয়েকটি বিশেষ নম্বর চালু করেছে। যার মাধ্যমে গ্রাহকরা কেবল হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করে লেনদেনের বিশদটি জানতে পারবে। কত ব্যালান্স আছে তা যাচাই করতে পারবে। এছাড়াও, গ্রাহকরা টোল-ফ্রি নম্বরে কল করে অন্যান্য সুযোগ-সুবিধাও নিতে পারবেন।

ব্যাঙ্ক অফ বরোদা কর্তৃক জারি করা নম্বরটি থেকে ২৪ ঘন্টা পরিষেবা পাওয়া যাবে। ব্যাঙ্ক কতৃপক্ষ নিজেদের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল থেকে এই তথ্য শেয়ার করেছে। সেখানে ব্যাঙ্কটি জনিয়েছে, ‘ আপনি সরাসরি আপনার বাড়ি থেকে ব্যাঙ্কিং সুবিধা গ্রহণ করতে পারেন। আপনাকে এটিএম বা ব্যাঙ্কে যাওয়ার প্রয়োজন হবে না। দেখে নিন তালিকা –

১. ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্টের ব্যালেন্স জানতে – 8468001111
২. অ্যাকাউন্টের শেষ ৫ লেনদেন জানতে – 8468001122
৩. ব্যাঙ্কের হোয়াটসঅ্যাপ পরিষেবাগুলির জন্য – 8433888777
৪.টোল ফ্রি নম্বর – 18002584455/18001024455

আপনি যদি ডেবিট কার্ড ব্লক করতে চান বা সুদের হার সম্পর্কে তথ্য জানতে চান তবে আপনি হোয়াটসঅ্যাপ পরিষেবার সুবিধাটি নিতে পারেন। এজন্য আপনাকে আপনার মোবাইলের কন্টাক্ট লিস্টে ব্যাঙ্কের হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর 8433888777 সেভ করতে হবে। এই নম্বরটির মাধ্যমে আপনি ব্যালেন্স চেক, শেষ পাঁচটি লেনদেন সম্পর্কিত তথ্য এবং চেক বইয়ের জন্যও আবেদন করতে পারবেন।

ব্যাঙ্ক অফ বরোদাও সম্প্রতি Baroda M Connect Plus অ্যাপ চালু করেছে।গ্রাহকরা এর মাধ্যমে ব্যাঙ্কিং সুবিধাও নিতে পারবেন। এর মাধ্যমে 24 ঘন্টা ব্যাঙ্কিং সুবিধা নেওয়া যেতে পারে। এর পরিপ্রেক্ষিতে ডিজিটাল শাখা চালু করা হয়েছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.