প্রতীকি ছবি

কলকাতা: নবমীর দুপুরে কামারহাটির একটি ওষুধের দোকানে বিস্ফোরণ৷ এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে৷ ঘটনাস্থলে যাচ্ছে ফরেন্সিক দল৷ তবে হতাহতের খবর নেই৷

আজ রবিবার দুপুর একটা নাগাদ ওষুধের দোকানে বিস্ফোরণ ঘটে৷ ঘটনার সময় ওই ওষুধের দোকানে দাঁড়িয়েছিলেন বেশ কয়েকজন৷ হঠাৎ দোকানের মধ্যে রাখা একটি ব্যাগের ভিতরে বিস্ফোরণ হয়৷ শুরু হয় ছোটাছুটি৷ চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়৷ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ৷ পাশাপাশি বিস্ফোরণের কারণ জানতে ঘটনাস্থলে যাচ্ছে ফরেন্সিক দল৷ এমনটাই সূত্রের খবর৷

পুলিশের প্রাথমিক অনুমান,নিষিদ্ধ শব্দবাজি থেকেই বিস্ফোরণ৷ কোনও ক্রেতার ব্যাগে ওই শব্দবাজি ছিল, না দোকানে ছিল, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে৷ এদিকে বিস্ফোরণ আইনে অজ্ঞাতপরিচয় এর নামে একটি মামলা রুজু করা হয়েছে বেলঘড়িয়া থানায়৷

এর আগেও কামারহাটিতে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছিল৷ সেই দিন ২ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ গুরুতর জখম হয়েছিলেন আরও একজন৷ বোমা বিস্ফোরণের ঘটনাটি ঘটেছিল উত্তর ২৪ পরগনার কামারহাটির গোলিঘাট এলাকায়৷

জানা গিয়েছিল,ঘরের মধ্যে ব্যাগে বোমা মজুত করে রাখা ছিলো। সেই ব্যাগ সরাতে গিয়েই বিপত্তি ঘটে। ঘটনার পর বিস্ফারণস্থলে আসে ৩ জন সদস্যর ফরেন্সিক বিশেষজ্ঞের একটি দল। ঘটনাস্থল ঘুরে নমুনা সংগ্রহ করেন তাঁরা।

ঘটনার পরই কামারহাটি বিস্ফোরণ ঘটনায় বাড়িমালিক শাহাজাদা হুসেনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃতের বিরুদ্ধে বেলঘড়িয়া থানার পুলিশ খুন ও বিস্ফোরণ আইনে মামলা রজু করে৷

প্রসঙ্গত, কামারাহাটিতে বোমা বিস্ফোরণে মৃত্যু হয় ২ ব্যক্তির। গুরুতর জখম হন আরও একজন। উত্তর ২৪ পরগনার কামারহাটির গোলিঘাট এলাকায় বিস্ফোরণের ঘটনাটি ঘটে। নিহতদের মধ্যে একজনের নাম শেখ রাজু। বয়স ৩৫ বছর। অন্য জনের নাম মহম্মদ শাহিদ। বয়স ৩০ বছর। গুরুতর জখম হন মহম্মদ আনিশ বলে আরও একজন।

বিস্ফোরণের খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে গিয়েছিল বেলঘড়িয়া থানার পুলিশ। বিস্ফোরণস্থল থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছিল শেখ রাজু ও শাহিদকে। দুজনকেই আশঙ্কাজনক অবস্থায় সাগর দত্ত মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। সেখানেই চিকিৎসকরা শেখ রাজু ও শাহিদকে মৃত বলে ঘোষণা করেছিল।

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I