ওয়াশিংটন : ভয়াবহ বিস্ফোরণে কাঁপল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। বালটিমোরের বিস্ফোরণে কমপক্ষে একজনের মৃত্যু হয়েছে। জখম বহু। এর মধ্যে তিনজনের অবস্থা গুরুতর। জানা গিয়েছে বিস্ফোরণের অভিঘাতে ধ্বসে পড়েছে বহু বাড়ি। ধ্বংস্বস্তুপে চাপা পড়েছে কমপক্ষে পাঁচজন। এরমধ্যে শিশুরাও রয়েছে।

দ্য বালটিমোর সান সংবাদপত্র জানাচ্ছে ন্যাচারাল গ্যাস বিস্ফোরণে এই ঘটনা ঘটেছে। দমকল জানাচ্ছে এখনও পর্যন্ত বিস্ফোরণের কারণ সঠিকভাবে জানা যায়নি। তদন্তকারী দল ও উদ্ধারকারী দল একসাথে কাজ করছে। ঘটনাস্থলে রয়েছে দমকলের একাধিক ইঞ্জিন। দমকলের তরফ থেকে একটি ট্যুইট করা হয়েছে। তিন জন রোগিকে উদ্ধার করা গিয়েছে।

একাধিক বাড়িতে বিস্ফোরণ হয়েছে। অসংখ্য মানুষ চাপা পড়ছেন বলে খবর দিচ্ছে দমকল। কাজ চলছে উদ্ধারের। গোটা এলাকায় ছেয়ে রয়েছে কালো ধোঁয়া। ধুলোর আস্তরণ চারপাশে। গ্যাসের গন্ধে কাজ করা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন উদ্ধারকারীরা।

ঘটনাস্থলেই এক ব্যক্তিকে মৃত ঘোষণা করা হয়েছে। পরিস্থিতি ক্রমশ ভয়াবহ হচ্ছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে বিপর্যয় মোকাবিলা দল।

গোটা এলাকা ঘিরে ফেলা উদ্ধারকাজ চালানো হচ্ছে। দমকলের সাথে একযোগে কাজ করছে গ্যাস কোম্পানি। যাতে বাকি মানুষরা সুরক্ষিত থাকেন তার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

ওই এলাকার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। ক্রমশ ধসে পড়ছে একের পর এক বাড়ি।

গত মঙ্গলবার বেইরুট বন্দর এলাকায় একটি রাসায়নিক পদার্থের গোডাউনে ২ হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট বিস্ফোরণ হয়। এই ঘটনায় ১৫৭ জনের মৃত্যু হয়। সাত হাজার মানুষ জখম।

বিস্ফোরণের তীব্রতা হিরোশিমায় পরমাণু হামলার ১০ ভাগের ১ ভাগ। এমনই জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। এই ভয়াবহ বিস্ফোরণের তীব্রতা এমনই যে বেইরুট থেকে ২৪০ কিলোমিটার দূরের সাইপ্রাস দ্বীপরাষ্ট্রে কম্পন ও শব্দ শোনা গিয়েছিল।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা