সৌপ্তিক বন্দ্যোপাধ্যায় : গঙ্গাকে পরিস্কার করতে যতই চেষ্টা হোক শহরের মানুষ যদি সচেতন না হয় তা কখনোই সম্ভভ নয়। অনেক প্রচারেও প্রত্যেক ভোরে দেখা মেলে গঙ্গাকে নোংরা করার প্রাত্যহিক কর্ম। কিন্তু এবার গঙ্গা বক্ষে সবান জল বা প্লাস্টিক নয়। গঙ্গার জলে  ভেসে বেড়ালো কালো তেল।

শুক্রবার সকাল থেকেই দেখা মেলে ওই তেল ভাসার দৃশ্যের। হাওড়া লঞ্চ ঘাট থেকে আহিরিটোলা ঘাট, এই লম্বা রাস্তায় গঙ্গার তথাকথিত পবিত্র জলে ভেসে বেড়াল কালো তেল। এই তেল লিক হয়েছে কোন একটি জেটি থেকেই। লঞ্চে করে যারাই যাচ্ছেন তারাই দেখলেন এই মারাত্মক দৃশ্য। অবাক করার মতো বিষয় হল এতে কোনও হেলদোলই নেই হুগলী রিভার কমিটির। তারা জানেনিই না এমন কিছু হয়েছে বলে। তাঁরা মেতে এপার ওপার বর্ডারের হিসাবে কষতে। এই চক্করে যে গঙ্গাটা আরও জলাঞ্জলিতে গেল কেউ খুঁজতেও চাইলেন না।

এর মাঝেই চলল দেদার কাপড় কাচা, স্নান। ওই ভয়ঙ্কর বিষ কালো তেল শরীরে গেলে যে কি ক্ষতি হতে পারে সেটা একবাও ভাবলেন না সাধারন মানুষও। চলল দেদার রোজগার কাজ। এই প্রশ্ন নিয়ে আমরা হাজির হয়েছিলাম হুগলী রিভার কমিটির সদস্য অনুপ চক্রবর্তীর কাছে। তিনি প্রথমে একটু নড়েচড়ে বসে খোঁজ নিলেন। তারপর জানালেন তাঁর দায়িত্ব বাঁধাঘাট থেকে হাওড়া অবধি। ওখানে এমন কোন কাণ্ড ঘটেনি। তাই এ দায়িত্ব তাঁর এখানেই শেষ। একবার চেষ্টাও করলেন না “বর্ডারে”র অপর পাড়ে যোগাযোগ করে তেল শোধরানোর কথা। অগত্যা তেল ভাসল সারাদিন। হয়তো আগামী দিনেও ফের তেল ভাসবে। কিন্তু আমরা তো নিজের নিয়েই থাকি। মিথ্যে বস্তায় পচছে “মা গঙ্গা”। নিচে দেখে নিন সেই ভিডিও