স্টাফ রিপোর্টার, কাঁথি: সদস্যতা অভিযান শুরু করছে বিজেপি৷ দেশ জুড়ে সেই অভিযানে নেমেছেন গেরুয়া শিবির৷ বাদ পড়বে না এই রাজ্যও৷ দল সূত্রে খবর, আগামী ৬ জুলাই ভারত কেশরী ডা: শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জির জন্মতিথিতে এই অভিযান শুরু হবে৷

সোমবার এই উপলক্ষে এক বিশেষ প্রস্তুতি বৈঠক অনুষ্ঠিত হল পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথি-১ ব্লকের সাতমাইল নেতাজী যুব সংঘের সভাগৃহে। উপস্থিত ছিলেন বিজেপির জোনাল অবজারভার তথা রাজ্য নেতৃত্ব তুষার মুখার্জি, জেলা অবজারভার মলয় সিনহা, কাঁথি সাংগঠনিক জেলা বিজেপির সভাপতি তপন মাইতি, জেলা সদস্যতা অভিযান প্রমুখ তাপস দলুই, সহ প্রমূখ অরূপ দাস সহ জেলা নেতৃত্ব৷ উপস্থিত ছিলেন ২৭জন মন্ডল সভাপতি৷

প্রথমেই কাঁথি জেলা সদস্যতা সহ প্রমূখ অরূপ দাস বলেন, ” সারা ভারত জুড়ে সদস্যতা অভিযানের সঙ্গে সঙ্গেই কাঁথি জেলাতেও জোরদার ভাবে চলবে সদস্যতা অভিযান। বিগত দিনে মিসড কলে মেম্বার হয়েছেন বহুজন, কিন্তু কিছু জনের ঠিকানা না পাওয়ায়, নতুন করে খুঁজে বের করতে হবে। সেই সঙ্গে নতুন করে সদস্য বাড়ানো ও কাঁথি জেলায় ২৭টি মন্ডলে একজন করে সদস্যতা প্রমূখ ও সহ প্রমূখ নিয়োগ অবিলম্বে করতে হবে।

কাঁথি সাংগঠনিক জেলা সভাপতি তপন মাইতি বলেন, “যত বেশি সংখ্যক সদস্য সংগ্ৰহ করা যায়, তার বিষয়ে জোর দিতেই হবে। বাড়ি বাড়ি, ছোট আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম, রাস্তার মোড়ে, হাটে, বাজারে ক্যাম্প করে সদস্যতা অভিযান চলবে।” তিনি জানান “এই অভিযানে সদস্য বাড়াতে সাংগঠনিক ক্ষেত্রকে কিভাবে ব্যবহার করা হবে তা বিস্তারিত ব্যাখ্যা করা হয়।”

জেলা বিজেপির পর্যবেক্ষক মলয় সিনহা বলেন, “নির্দিষ্ট তারিখের মধ্যে জেলার প্রতিটি মন্ডল ও শক্তিকেন্দ্রে প্রস্তুতি বৈঠক সফল ভাবে সমাপ্ত করতে হবে। অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় পশ্চিমবঙ্গের জন্য লক্ষ্যমাত্রা সর্বাধিক, তাই প্রতি বুথে নুন্যতম বিশেষ সংখ্যক সদস্য করাতে হবে।” তিনি জানান, এই অভিযান শুরু হবে আগামী ৬ জুলাই৷ কিন্তু তার আগে সমস্ত প্রস্তুতি সেরে রাখতেই হবে।”

জোনাল অবজারভার ও রাজ্য নেতৃত্ব তুষার মুখার্জি বলেন, “বুথ প্রতি লক্ষ্যমাত্রা পুরনে সদস্যতা প্রমূখদের পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হচ্ছে। প্রতি বুথে মাইক ছাড়া ছোট ছোট মিছিল করে মানুষের কাছে আবেদন জানানো হবে। লিফলেটও বিলি করা হবে। পাশাপাশি বিশিষ্ট নাগরিকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে সদস্য করানোর উপর জোর দিতে হবে।” এ দিনের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কয়েকশো বিজেপি নেতা-কর্মী৷